ArthoSuchak
শুক্রবার, ১০ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

৮৯ শতাংশ শিশু নিজ বাড়িতে নির্যাতনের শিকার

সারা দেশে শিশুদের সঙ্গে নিজ পরিবারে সহিংস আচরণের হার আশঙ্কাজনক ভাবে বেড়েছে। এক থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের প্রায় ৮৮ দশমিক ৮ শতাংশ শিশু তাদের লালনকারীদের কাছ থেকে সহিংস আচরণের শিকার হচ্ছে বলে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) মাল্টিপল ইন্ডিকেটর ক্লাস্টার সার্ভে -২০১৯ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে আসে।

আজ সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) ভবনের অডিটোরিয়ামে প্রগতির পথে বাংলাদেশ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে এ প্রতিবেদন তুলে ধরা হয়।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, ১৫ বছরের নিচে প্রতি ১০ জনের নয় জন শিশুই তাদের অভিভাবক বা সেবা প্রদানকারীদের দ্বারা কোনো না কোন ভাবে সহিংসতার শিকার হয়।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, দেশে ৫ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের মধ্যে শতকরা ৬ দশমিক ৮ শতাংশ শিশুশ্রমে বাধ্য হয়। এদিকে গত ছয় বছরে কোনো অগ্রগতি নেই বাল্যবিবাহ কমার ক্ষেত্রে। ১৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের মধ্যে শতকরা ১৫ দশমিক ৫ শতাংশের বিয়ে হয়ে যাচ্ছে। আর ১৮ বছরের নিচে বিয়ে হচ্ছে ৫১ দশমিক ৪ শতাংশ শিশুর।

দেশজুড়ে দৈবচয়ন ভিত্তিতে ২০১৯ সালের ১৯ জানুয়ারি থেকে ১ জুনের মধ্যবর্তী সময়ে ৬১ হাজার ২৪২টি পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে গবেষণার তথ্য সংগ্রহ করে এমআইসিএস।

এছাড়া প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ছয় বছরে নারীদের ইন্টারনেট ব্যবহারের পরিমাণ বেড়েছে ৩৭ দশমিক ৬ শতাংশ। তারা বাসা বাড়িতে যে কোন মাধ্যমে ব্যবহার করছেন ইন্টারনেট। দেশের শতকরা ৬ দশমিক ৫ শতাংশ বাসায় রয়েছে কম্পিউটার। দেশের শতকরা ৭১ দশমিক ৪ শতাংশ নারী মোবাইল ব্যবহার করছেন। এছাড়া শতকরা ৯৫ দশমিক ৯ শতাংশ বাড়িতেই রয়েছে মোবাইল ফোন।

বর্তমানে দেশে নারীদের মধ্যে উচ্চ শিক্ষার হার বাড়ছে। বর্তমানে ৮৮ দশমিক ৭ শতাংশ নারী যেকোন স্টেটমেন্ট পড়তে পারেন। ছয় বছর আগে এই হার ছিল ৮২ শতাংশ।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) মহাপরিচালক মোহাম্মদ তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিবিএস সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী, বিবিএস উপ মহাপরিচালক সুব্রত ঘোষ প্রমুখ।

অর্থসূচক/এমআরএম/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ