বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি দেখানো হবে হোটেল রেডিসনে
রবিবার, ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি দেখানো হবে হোটেল রেডিসনে

World-cup-trophyফিফা বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি পূর্ব নির্ধারিত বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের পরিবর্তে হোটেল রেডিসনে দেখানো হবে। দেশের চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ভক্তদের জন্য বেশ কিছু অনুষ্ঠান বাতিল করে শুধুমাত্র ১৫ হাজার দর্শকের জন্য এ ব্যবস্থা করে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)

মঙ্গলবার দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে বিশ্বের সবচেয়ে টুর্নামেন্টের এই ট্রফি পৌঁছানোর পর এ কথা জানান বাফুফে সভাপতি কাজী সালাহ উদ্দিন আহমেদ ।

এর আগে চলতি বছরের ১২ সেপ্টেম্বর বিশ্বকাপ ফুটবলের এ ট্রফি ব্রাজিলের রিওডি জেনেরিও থেকে ফিফার সদস্য দেশগুলোর জন্য ২৬৭ দিনের পথ ভ্রমনে বের হয়।প্রায় ৫০ হাজার কিলোমিটার পাড়ি দেওয়ার জন্য নামা এ ট্রফি দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশেই প্রথম আসে। এরপর নেপাল,ভারতসহ অন্যান্য দেশগুলোতেও যাবে এ ট্রফি।
শাহজালাল বিমান বন্দরে ১৮ ক্যারেট খাঁটি সোনায় তৈরী বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম আর্কষণ বিশ্বকাপ ট্রফি বরণ করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা। বেলা ৩ টায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদের কাছে ট্রফি নিয়ে গেলে তিনি তা গ্রহন করছেন।এরপর ৪ টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ট্রফিসহ সাক্ষাৎ করেছেন ফেডারেশন ও কোকাকোলার কর্মকর্তা।

গণভবন থেকে হোটেল রেডিসন ওয়াটার গার্ডেনে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ফুটবলের সেরা পুরস্কারটি। বুধবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এই ট্রফি প্রদর্শনের কথা থাকলেও দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারনে শেষ মুহূর্তে সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করে বাফুফে। স্বয়ংক্রিয় ছবি তোলার ব্যবস্থা থাকায় ব্যক্তিগতভাবে ছবি তোলা নিষিদ্ধ থাকছে এই প্রদর্শনীতে। নিষিদ্ধ থাকছে ট্রফি স্পর্শ করাও। ফলে নিরাপত্তা রক্ষার্থে নির্দিষ্ট দূরত্ব থেকেই এই ট্রফি দেখতে পারবে ফুটবলপ্রেমীরা।

এই প্রদর্শনীতে ট্রফি দেখার সুযোগ পাবে কোকাকোলার কর্মকর্তা,গ্রাহক,স্কুল শিশু ও ক্রীড়াঙ্গনের সদস্যসহ প্রায় ১৫ হাজার ফুটবলপ্রেমী।কোকাকোলার বোতলের মুখের বিশেষ নম্বর এসএমএসকারীদের মধ্যে লটারি করে দেয়া হয়েছে প্রায় ৯ হাজার টিকেট। এছাড়াও বাফুফের ও সরকারের দায়িত্বশীলরা সৌজনে টিকেটে দেখতে পাবে এ ট্রফি।৩ দিন বাংলাদেশে অবস্থানকালে ১৮ ও ১৯ তারিখ কোকাকোলার কর্মকর্তা ও আমস্ত্রিত অতিথীরা দেখবেন এ ট্রফি। আর শেষ দিন দেখবে লটারীর মাধ্যামে বিজয়ী ফুটবল প্রেমিরা।
প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ট্রফি প্রদর্শনীর পাশাপাশি সঙ্গীত অনুষ্ঠান, বিশ্বকাপের বিভিন্ন আসরের স্মরণীয় ছবি প্রদর্শন ও ফিফা বিশ্বকাপের থিমসংয়ের বাংলা সংস্করণ পরিবেশনসহ নানা আয়োজন করা হলেও দেশের চলমান সংকটের কারণে তা থেকে বঞ্চিত হলো ভাগ্যবান এ ফুটবলপ্রেমীরা।

 

এইউ নয়ন

এই বিভাগের আরো সংবাদ