ব্যাংকে জমা রাখুন ভালোবাসা
বুধবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ব্যাংকে জমা রাখুন ভালোবাসা

টাকা-পয়সা বা মূল্যবান সামগ্রী ব্যাংকে জমা রাখি আমরা। মাঝে মাঝে আমাদের মনে হয়, পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ‘ভালোবাসা’ যদি ব্যাংকে জমা রাখা যেত তাহলে প্রিয়জনের জন্য সেটা জমা রাখতাম! অবাক হলেও সত্য, স্লোভাকিয়ায় এ অসম্ভব কাজই সম্ভব হয়েছে। সেখানে ব্যাংকে জমা রাখা হচ্ছে ভালোবাসা। এ জন্য রয়েছে ভল্ট। আর সেই ভল্টে রয়েছে প্রায় ১ লাখ ছোট ছোট ড্রয়ার।

ভালোবাসা আমানত রাখা ওই ব্যাংকের নাম ‘লাভ ব্যাংক’। তবে এ ব্যাংকে ঠিক সরাসরি ভালোবাসা জমা রাখা যাচ্ছে না। ভালোবাসার স্মারক রাখা যাচ্ছে ব্যাংকটির ভল্টে। যে কেউ সেখানে বাগদানের আংটি, চিঠি, এমনকি প্রথম একসঙ্গে দেখা সিনেমার টিকিটও জমা রাখতে পারবেন।

ভালোবাসা জমা রাখার এ ভল্টের পেছনে একটি ইতিহাস রয়েছে। স্লোভাকিয়ার মধ্যাঞ্চলীয় শহর বানস্কা স্তিয়াভনিসার যে বাড়িতে ভল্টটি বানানো হয়েছে, সেটির নাম হাউস অব মেরিনা। এই মেরিনা ছিলেন কবি আন্দ্রেজ স্লাদকোভিসের প্রেমিকা। কিন্তু মেরিনার বাবা দরিদ্র আন্দ্রেজকে পছন্দ করেননি। তিনি মেয়েকে বিয়ে দিয়েছিলেন এক ধনীর ছেলের সঙ্গে। এই বিরহে ২ হাজার ৯১০ পঙ্ক্তির দীর্ঘ এক প্রেমের কবিতা লিখেছিলেন আন্দ্রেজ। ১৮৪৬ সালে কবিতাটি প্রকাশ হয়। সেই কবিতাটি দিয়েই মুড়ে দেওয়া হয়েছে লাভ ব্যাংকের ভল্টটি। ওই ভল্টের ড্রয়ারে ভালোবাসার স্মারক জমা রাখতে পারবেন যে কেউ। ব্যবহারকারীর অনুমতি ছাড়া ওই ড্রয়ার খোলা হবে না।

লাভ ব্যাংকের ওই ভল্ট ব্যবহার করছেন স্লোভাকিয়ার এলিস্কা গ্যালিসোভা ও তার প্রেমিক ম্যাতুজ রেজনি। এলিস্কা বলেন, ভালোবাসা কত দিন স্থায়ী হলো কিংবা কতটা বাধা পেল, এটা বড় কথা নয়। বড় কথা হলো ভালোবাসা যখন থাকে, আমি মনে করি, তখন গল্পটা অনেক সুন্দর হয়।

সূত্র: রয়টার্স, বিবিসি।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ