বসন্ত এলেও নাগালে আসেনি সবজির দাম
বুধবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বসন্ত এলেও নাগালে আসেনি সবজির দাম

শীত পেরিয়ে এসেছে বসন্ত। নতুন রং নতুন ঘ্রাণে জেগেছে প্রকৃতি। প্রতিবছরই শীতকালে শীতের সবজিতে বাজার ভরপুর থাকে। সামর্থের মধ্যে সবাই মনের খুশিতে বাজার করতে পারে। কিন্তু এবার শীতের মৌসুম পেরোলেও নাগালে আসেনি শাকসবজির দাম।

আজ শুক্রবার রাজধানীর মিরপুর, শেওড়াপাড়া, কাজীপাড়া, আগারগাঁও, তালতলা, কল্যাণপুর, মোহাম্মদপুর ও কারওয়ান বাজার ঘুরে এবং ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা যায়।

শেওড়াপাড়া বাজারে দেখা যায়, প্রতিটি তরতাজা লাউ বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকায়। যা স্বাভাবিকভাবে বিক্রি হয় ৪০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে। প্রতিটি ফুলকপি ও বাঁধাকপি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকায় যা প্রতিবছর এই সময়ে ১৫ থেকে ২০ টাকায় বিক্রি হয়। শিম বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়। যা এই সময়ে ৩০ টাকার মধ্যে থাকে। বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরে। করলা বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা কেজি দরে। বরবটি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। আর টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি দরে, শসা বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা কেজি। মুলা বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে।

এদিকে শাকসবজির দাম বাড়ার কারণ হিসেবে সবজি বিক্রেতা আব্দুস সালাম বলেন, বাজারে চাহিদার তুলনায় সবজির সরবরাহ কম। বিভিন্ন এলাকা থেকে সবজির আমদানি এ বছর কিছুটা কম। তাই প্রতিবছর যে হারে সবজির দাম কমে আসে সেটা এ বছর কমছে না।

শেওড়াপাড়া বাজারে সবজি কিনতে আসা সালমা বেগম বলেন, একটি লাউ কিনতে গেলে ৭০ থেকে ৮০ টাকা গুনতে হচ্ছে। ফুলকপি এবং বাঁধাকপি এখনো ৩০ টাকার উপরে বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য বছরে এ সময় ফুলকপি-বাঁধাকপি ২০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায়। এখন সবজির মৌসুম যদি দাম না কমে। তাহলে আগামীতে আরও নাগালের বাইরে চলে যাবে।

এদিকে গত বছরের তুলনায় এ বছর প্রায় পাঁচ গুণ বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। গত বছর এই সময় পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি ২৫ থেকে ৩০ টাকা। আর বর্তমানে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৩০ টাকা। গত বছর এ সময়ে প্রতি কেজি রসুন বিক্রি হয়েছিল ৬০ থেকে ১০০ টাকায়। আর বর্তমানে রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৮০ থেকে ২২০ টাকায়। দাম দ্বিগুণের বেশি বেড়েছে।

এদিকে নতুন করে দাম না বাড়লেও গত এক থেকে দেড় মাসের ব্যবধানে দাম বেড়েছে চাল-ডাল ও তেল-মসলাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম। তবে কিছুটা কম রয়েছে বয়লার মুরগির দাম। প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১২০ থেকে ১৩০ টাকায়। এছাড়া আগের মতোই গরুর মাংস ৫৫০ টাকা খাসির মাংস ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

অর্থসূচক/এমআরএম/এএইচআর

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ