সৌদির প্রবাসী শ্রমশক্তির ১৩ শতাংশই বাংলাদেশি
বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

সৌদির প্রবাসী শ্রমশক্তির ১৩ শতাংশই বাংলাদেশি

সৌদি আরবের কাজ করা প্রবাসী শ্রমশক্তির ১৩ শতাংশের বেশি বাংলাদেশি বলে জানিয়েছেন দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মাহির আব্দুর রাহমান গাসিম। তিনি বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিকরা সৌদি আরবের অর্থনীতিতে বিশেষ ভূমিকা রাখছে।

আজ বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার লক্ষ্যে যৌথ কমিশনের ১৩তম সভায় তিনি এসব কথা বলেন। দুইদিন ব্যাপী এই সভা চলবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত।

সৌদি আরবের শ্রম উপমন্ত্রী বলেন, আমরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে উৎসাহী। দুদিনের আলোচনার মধ্যদিয়ে দুই দেশের মধ্যে বিনিয়োগ, বাণিজ্য এবং পারস্পারিক সহযোগিতার ক্ষেত্র আরও মজবুত হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

১৩তম সভায় বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব রয়েছেন ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ। আর সৌদি প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে রয়েছেন দেশটির শ্রম মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী মাহির আব্দুল রাহমান গাসিম। এ সভায় বাংলাদেশের পক্ষে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি প্রতিনিধি দল এবং সৌদি আরবের সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের ৪০ সদস্যবিশিষ্ট প্রতিনিধি দল উপস্থিত রয়েছেন।

বৈঠকের শুরুতে ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ জনশক্তি ও কর্মসংস্থান খাতে সহযোগিতা, দ্বিপাক্ষিক অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক উন্নয়ন সংক্রান্ত সহযোগিতা, বিনিয়োগ ও শিল্প সংক্রান্ত সহযোগিতা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে সহযোগিতা, ধর্মবিষয়ক খাতে সহযোগিতা, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন খাতে সহযোগিতা, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে সৌদি আরবের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

ইআরডি সচিব বলেন, বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতার লক্ষ্যে ১৯৭৮ সালের ২০ ডিসেম্বর চুক্তি অনুসারে যৌথ কমিশন গঠিত হয়। এরপর দুদেশের মধ্যে এ পর্যন্ত ১২টি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সর্বশেষ সভা ২০১৮ সালের ১৪ ও ১৫ মার্চ সৌদি আরবের রিয়াদে অনুষ্ঠিত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় দুদেশের মধ্যে ১৩তম সভাটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বৈঠকে উপস্থিত সৌদির শীর্ষ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান আরামকোর বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার জুলিও সি হেজেলমেয়ার মোসেস জানান, বাংলাদেশে বিনিয়োগের জন্য সুযোগ খুঁজছি। আশা করছি বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে পারব। সেই উদ্দেশ্যেই এই সভায় যোগ দিয়েছে। বাংলাদেশ আগেও এসেছি। বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে আরামকো আগ্রহী বলেও জানান তিনি।

অর্থসূচক/এমআরএম/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ