করোনা ভাইরাস: মা-মেয়ের আলিঙ্গনের আবেগঘন ভিডিও ভাইরাল
শনিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

করোনা ভাইরাস: মা-মেয়ের আলিঙ্গনের আবেগঘন ভিডিও ভাইরাল

শুধু মাত্র কয়েক হাত দূর থেকে হাসপাতালে মাকে দেখে আসা ছাড়া, আর কোনও উপায় নেই মেয়ের। এত কাছে থেকেও ছুঁয়ে দেখতে পারছে না। আলিঙ্গন তো দূরের কথা। মায়ের জন্য আনা খাবার যে হাতে তুলে দেবে সেই সুযোগও নেই।

এমন অবস্থায় চীনের ঝোকৌয়ের এক হাসপাতালে লি হাইয়ান নামে এক নার্সের সঙ্গে দেখা করতে এসেছেন তার ছোট্ট মেয়ে। মেয়েকে কাছে পেয়েও বুকে টেনে নিতে পারেননি মা। মেয়েও মাকে এসে জড়িয়ে ধরতে পারেনি। ওই মুহূর্তের ভিডিও ক্যামেরা বন্দি করেছে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম শিনহুয়া।

চীনে মা-মেয়ের উড়ন্ত আলিঙ্গন ও কান্নার একটি আবেগঘন দৃশ্যের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, চেং তাঁর মা লিউয়ের সঙ্গে দেখা করতে হাসপাতালে আসে। দুজনেরই মুখ ও মাথায় মাস্ক পরা। এ সময় বাচ্চাটি তার মাকে কাঁদতে কাঁদতে প্রশ্ন করছে কবে আবার সব আগের মতো হবে মা?

সে বলছে, ‘মা আমি তোমাকে অনেক মিস করছি।’ উত্তরে মা বলছেন, ‘আমি দৈত্যর (করোনা ভাইরাস) সঙ্গে লড়াই করছি। তাদের মেরেই আবার ফিরে আসবো। তখন বাড়ি ফিরে যাব।’

একথা বলার পরই অঝোরে কাঁদতে থাকেন মা-মেয়ে। এরপর দূর থেকে আলিঙ্গনের ভঙ্গিমায় হাত বাড়ান মা। মেয়েও দেখে তাই করে। ভিডিও শেষ হওয়ার আগে দেখা যায়, মায়ের জন্য বাড়ির তৈরি খাবার টিফিনবক্সে করে এনেছে চেং শিওয়েন। চেং শিওয়েন ওই খাবার রেখে দেয় হাসপাতালের সীমান্তে। লিউ হাইয়ান সেখান থেকে টিফিন বক্সটা নিয়ে যায়।

আবেগঘন এই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়ে যায়। আর এই মুহূর্ত মন কেড়েছে নেটিজেনদের। তাদের একটিই প্রার্থনা- যত তাড়াতাড়ি সম্ভব করোনাভাইরাস দমন হোক। দূরত্ব ঘুচুক মা-মেয়ের।

প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত চীনে মৃতের সংখ্যা ৮০০ ছাড়িয়েছে, আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৩৭ হাজারের বেশি। এছাড়া এ পর্যন্ত চীনের মূল খণ্ডের বাইরে হংকংয়ে একজন এবং ফিলিপাইনে একজন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। বিশ্বের অন্তত ২৫টি দেশে কয়েক জনের দেহে এই ভাইরাস পাওয়া গেছে।

ভাইরাসটির ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে চীনের বেশ কয়েকটি শহর অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে এবং বিশ্বজুড়ে কয়েক হাজার লোককে কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়েছে। ট্রেন স্টেশন ও বিমানবন্দরের পাশাপাশি রাস্তাগুলোও বন্ধ করে দেওয়ায় চীনের মধ্যাঞ্চলীয় হুবেই প্রদেশ প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে আছে। প্রথমে এই প্রদেশেই ভাইরাসটি শনাক্ত হয়েছিল। প্রাদেশিক রাজধানী উহানের একটি সিফুড মার্কেট থেকে ভাইরাসটির উৎপত্তি বলে মনে করা হয়।

উহান থেকে কয়েক হাজার বিদেশিকে সরিয়ে নেওয়ার পর তাদের নিজ নিজ দেশে কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়েছে। এর পাশাপাশি জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরে ও হংকং বন্দরে দুটি প্রমোদতরীর কয়েক হাজার যাত্রী ও ক্রুকে পর্যবেক্ষণের জন্য জাহাজেই অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে।

 

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ