ArthoSuchak
মঙ্গলবার, ৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আগামী শিক্ষাবর্ষেই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা

আগামী শিক্ষাবর্ষ (২০২০-২১) থেকে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা শুরু হতে যাচ্ছে। অনেকদিন ধরে গুঞ্জন শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হচ্ছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যগণ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ইউজিসি থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নতুন এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ থেকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য সমন্বিত পরীক্ষা নেওয়া হবে। বিভাগীয় শিক্ষার্থীদের সিলেবাস অনুযায়ীই এই পরীক্ষা নেওয়া হবে। এখান থেকেই মেধাক্রম অনুযায়ী বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা ভর্তির সুযোগ পাবে।

এতে বলা হয়, মানবিক, ব্যবসায় ও বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা উচ্চ মাধ্যমিকের পাঠ্যসূচির ওপর ভিত্তি করে তৈরি করা প্রশ্নপত্রে সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে অনুষ্ঠিত সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে।

ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের উপাচার্যবৃন্দ এবং তাদের মনোনীত প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইউজিসিতে আয়োজিত এই সভায় সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ে ধারণাপত্র উপস্থাপন করেন কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. দিল আফরোজা বেগম। সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর। ইউজিসি সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন এসময় উপস্থিত ছিলেন।

ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতির বিভিন্ন বিষয়ে আলেচনার জন্য ১৯৭৩ এর অধ্যাদেশ বলে গঠিত ৪টি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কিছু নির্বাচিত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যবৃন্দের সঙ্গে শিগগির এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

তিনি বলেন, মহামান্য রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার জন্য বিভিন্ন সময়ে তাদের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন। গত বছর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের উপাচার্যদের সংগঠন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদ সমন্বিত পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। আজ দেশ ও জাতির প্রত্যাশা সমন্বিত পদ্ধতিতে একটি ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হোক। এখানে দ্বিমতের কোন অবকাশ নেই।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ