নির্বাচনে অংশগ্রহণও আন্দোলনের অংশ: ফখরুল
মঙ্গলবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নির্বাচনে অংশগ্রহণও আন্দোলনের অংশ: ফখরুল

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, প্রতি মুহূর্তেই আমরা আন্দোলনে আছি। আমরা যখন কোর্টে যাই তখনও আন্দোলন করি। আমরা যখন মিটিং-মিছিলে যাই তখনও আন্দোলন করি। সিটি নির্বাচনে যাওয়াটাও আমাদের আন্দোলনের অংশ।

আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ আয়োজিত ‘নির্বাচনে আস্থাহীনতা, ইভিএমের ব্যবহার: বর্তমান প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক এক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি আগে থেকে কখনোই বলতে রাজি নই যে, আমরা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হেরে যাব। ঢাকা সিটি নির্বাচনে যে মিছিল হচ্ছে সেখানে অনেক বেশি মানুষ অংশগ্রহণ করছে। তাদেরকে যদি আমরা সংহত করতে পারি এবং আন্দোলনের দিকে নিয়ে যেতে পারি, তাহলে নিশ্চয়ই আমরা সফল হবো। আর সে কারণেই আমাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা।

তিনি আরও বলেন, আমরা যখন ভোটে যাই, সেটাও আন্দোলনের অংশ, আমরা যখন এখানে আলোচনা করি সেটাও আন্দোলনের অংশ। সবকিছু নিয়ে আমরা একটা গণতান্ত্রিক আন্দোলনের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছি। ভুল-ত্রুটি আছে, থাকতেই পারে। তাও প্রতি মুহূর্তে আমরা সফলতার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ভুলত্রুটি আমাদের থাকতে পারে। আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি সফলতার পথে যেতে। বিশ্বে রাজনৈতিক যে পরিবর্তন এসেছে আমাদের তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। আমি বিশ্বাস করি আমরা সফল হবো।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই একে একে গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো অত্যন্ত সুকৌশলে, সুপরিকল্পিতভাবে, সুচিন্তিতভাবে ধ্বংস করে দিয়েছে। তাদের মূল লক্ষ্য ছিল একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রবর্তন করা।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির শুরু থেকে একটা লিবারেল ডেমোক্রেটিক পলিটিক্যাল পার্টি। এ পার্টির যে নিজস্ব চরিত্র আছে, সে চরিত্র নিয়ে সামনের দিকে এগুচ্ছে। বিশ্ব রাজনীতির যে পরিবর্তন হয়েছে সেগুলোকে সামনে রেখে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে। হঠকারী সিদ্ধান্ত নিয়ে সামনে আগানো যাবে না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এই দানবকে পরাজিত করতে হবে। এই কথাটি আমরা সব জায়গায় বলেছি। সুখে থাকার, আরামে থাকার মানুষগুলো রাস্তায় নামে না, রাস্তায় নামে কর্মীরা।

বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের (বিএসপিপি) ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক শওকত মাহমুদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) অধ্যাপক ড. মো. আক্তার হোসেন।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ