আজ নতুন চ্যাম্পিয়ন পাবে বিপিএল
মঙ্গলবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আজ নতুন চ্যাম্পিয়ন পাবে বিপিএল

নতুনের জয়গান বঙ্গবন্ধু বিপিএলে। ২০ ওভারের এই ক্রিকেট ধামাকা এবার পাচ্ছে নতুন চ্যাম্পিয়ন। যাদের হাতে এই ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেটের ট্রফি উঠেনি, তেমনই দুই দল আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় মুখোমুখি ফাইনালে।

মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ফাইনালে লড়বে খুলনা টাইগার্স ও রাজশাহী রয়্যালস। ম্যাচটি শুরু সন্ধ্যা সাতটায়।

শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে গতকালের ট্রফি উন্মোচন অনুষ্ঠানটি বেশ প্রাণবন্তই ছিল। বিপিএল শুরুর আগে অধিনায়কদের পরিচিতি পর্বের মতো হ-য-ব-র-ল ছিল না। খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও রাজশাহী রয়্যালসের দলনেতা আন্দ্রে রাসেল খোশমেজাজেই ট্রফির পর্দা তোলেন। আজ অবশ্য একজনের মুখে হাসি থাকবে না। বাড়ি ফিরতে হবে না-পাওয়ার আক্ষেপ নিয়ে। কার হাতে উঠবে ইংল্যান্ডের বিখ্যাত ‘ইংকারম্যান’ কোম্পানি থেকে বানিয়ে আনা ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’-এর চমৎকার ট্রফিটি! মুশফিক, নাকি রাসেলের হাতে? যার হাতেই উঠুক, নতুন চ্যাম্পিয়ন পাচ্ছে বিপিএল।

গত ছয় আসরে বিপিএল শিরোপা ভাগাভাগি হয়েছে তিনটি দলের মধ্যে। প্রথম দুই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস। তৃতীয় আসরে শিরোপা যায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হাতে। চতুর্থ আসরে আবার ঢাকার হাতে। এবার ঢাকা ডায়নামাইটস নামে শিরোপা জেতে দলটি। পঞ্চম আসরে চ্যাম্পিয়ন হয় রংপুর রাইডার্স। আর গতবার দ্বিতীয়বারের মতো শিরোপা জেতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এবার সাবেক তিন চ্যাম্পিয়ন দলের কেউ ফাইনালেই উঠতে পারেনি।

এই লড়াইয়ের আগে কাউকেই আলাদা করে ফেভারিট বলা যাচ্ছে না। সত্যিকার অর্থে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে তেমন করে এগিয়ে রাখার সুযোগও যেন নেই। তবে এবারের আসরের দুই দলের হেড টু হেড যদি দেখা হয় তবে এগিয়ে খুলনা টাইগার্স। দু’বার জিতেছে তারা। বিপরীতে একবার জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রাজশাহী রয়্যালস।

রাজশাহীকে একাই এগিয়ে দিচ্ছেন আন্দ্রে রাসেল। ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের বিপক্ষে তার হাত ধরেই দল পেয়েছে ২ উইকেটের নাটকীয় জয়। তবে এখন উৎসবে মেতে উঠতে রাজি নন আন্দ্রে রাসেল। আগের দিন অধিনায়ক স্পষ্ট জানিয়ে রাখলেন, ‘ফাইনালের পরই পার্টি করতে চাই।’

খুলনাও বেশ মুখিয়ে আছে। মুশফিকুর রহিম নেতৃত্ব দিচ্ছেন সামনে থেকে। দ্বিতীয়বারের মতো দল উঠে এসেছে ফাইনালে। এবার শিরোপা জিতেই ফিরতে চায় তারা।

তবে রাতের ম্যাচে মিরপুরের উইকেটে টস হতে পারে বড় ফ্যাক্টর। রাতের শিশিরে বোলিং করাটা কঠিন ব্যাপার। এ অবস্থায় টস জিতে আগে বোলিংয়ের কাজটা সেরে রাখতে চাইবেন দুই অধিনায়কই।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ