যেসব প্রতীক পেলেন দক্ষিণের মেয়র প্রার্থীরা
রবিবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

যেসব প্রতীক পেলেন দক্ষিণের মেয়র প্রার্থীরা

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে অংশ নেওয়া মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্রতীক বুঝে পেয়েছেন। প্রতীক পাওয়ার পর তারা নিজ নিজ এলাকায় গিয়ে নির্বাচনী প্রচার শুরু করতে পারবেন।

আজ শুক্রবার সকালে বৈধ সাত জন মেয়র প্রার্থীকে নিজ নিজ দলের প্রতীক বরাদ্দ দেয় রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন। রাজধানীর গোপীবাগে সাদেক হোসেন খোকা কমিউনিটি সেন্টারে স্থাপিত ডিএসসিসি নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রতীক বুঝে নেন মেয়র প্রার্থীরা।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস ‘নৌকা’, বিএনপির ইশরাক হোসেন ‘ধানের শীষ’, জাতীয় পার্টির হাজি মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন মিলন ‘লাঙ্গল’, ইসলামী আন্দোলনের মো. আবদুর রহমান ‘হাতপাখা’, ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টির (এনপিপি) বাহরানে সুলতান বাহার ‘আম’, বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আকতার উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ ‘ডাব’ এবং গণফ্রন্টের আব্দুস সামাদ সুজনকে ‘মাছ’ প্রতীক বরাদ্দ করা হয়।

মেয়র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের পর ডিএসসিসির ৭৫টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে প্রতীক বরাদ্দ শুরু হয়েছে। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩৫ জন প্রার্থীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। এরপর ২৫টি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৮২ জন প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বলেন, প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে প্রার্থীরা এখন আইন মেনে প্রচারণা চালাতে পারবেন। দুপুর দুইটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত মাইকিং করে প্রচারণা চালানো যাবে। প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিয়ে ক্যাম্প স্থাপন করতে পারবেন। সেখানে শুধু নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে পারবেন। কোনও ধরনের মিছিল, শো-ডাউন, বড় ধরনের জনসভা ও তোরণ নির্মাণ করা যাবে না। তবে ঘরোয়া বৈঠকে প্রার্থীরা অংশ নিতে পারবেন। অনেক প্রার্থীর পোস্টার লাগানো আছে বলে অভিযোগ এসেছে। যেসব প্রার্থীর পোস্টার আছে তাদের বিষয়টি তদারকি করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে ইতোমধ্যেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটির নির্বাচনের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ছিল ৩১ ডিসেম্বর, বাছাই ২ জানুয়ারি ও প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ছিল ৯ জানুয়ারি। আগামী ৩০ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। পুরো ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির মোট সাধারণ ওয়ার্ড ৭৫টি, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ২৫টি, সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্র ১ হজাজার ১২৪টি, ভোটকক্ষ ৫ হাজার ৯৯৮টি, মোট ভোটার সংখ্যা ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৮ জন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটির মোট সাধারণ ওয়ার্ড ৭৫টি, সংরক্ষিত ওয়ার্ড ২৫টি, সম্ভাব্য ভোটকেন্দ্র ১ হজাজার ১২৪টি, ভোটকক্ষ ৫ হাজার ৯৯৮টি, মোট ভোটার সংখ্যা ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৮ জন।

উল্লেখ্য, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হয়েছিল ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল। ঢাকা দক্ষিণ সিটির প্রথম সভা হয়েছিল ১৭ মে। এই হিসেবে ২০২০ সালের ১৬ মে দক্ষিণের মেয়াদোত্তীর্ণ হবে। আইন অনুযায়ী, মেয়াদোত্তীর্ণের ১৮০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ