৮৯ কিলোমিটার রেলপথে ৯২ জনের মৃত্যু
বৃহস্পতিবার, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

৮৯ কিলোমিটার রেলপথে ৯২ জনের মৃত্যু

ভৈরব রেলওয়ে থানাধিন ৮৯ কিলোমিটার রেলপথে গত এক বছরে ট্রেনে কাটা পড়ে ৯২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট রেলপথে ভৈরব রেলওয়ে থানাধিন ভৈরব-টঙ্গী পর্যন্ত ৭০ কিলোমিটার এবং ভৈরব-কিশোরগঞ্জ রেলপথের ভৈরব-সরারচর ১৯ কিলোমিটারসহ মোট ৮৯ কিলোমিটার পথের মধ্যে ২০১৯ সালের ১জানুয়ারি থেকে ৩১ডিসেম্বর পর্যন্ত এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

ভৈরব রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফেরদাউস আহমেদ বিশ্বাস জানান, যাত্রীদের অসর্তক রেলভ্রমণ, ছাদে ভ্রমণ, দুই বগীর মধ্যস্থলে ভ্রমণ, স্টেশনের ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে ঝুঁকিপূর্ণ রেললাইন পারাপার, চলন্ত ট্রেনে ওঠা-নামা এবং রেলওয়ের গেইটগুলিতে সিগন্যাল অমান্য করে চলাচলের কারণে এই অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

এই মৃত্যুর মিছিলে ২৪জন নারী ও ৬৮জন পুরুষ রয়েছেন বলে জানিয়ে তিনি আরও জানান, এইসব দুর্ঘটনায় কিছু লোকের পরিচয় পাওয়া গেলেও, অধিকাংশই থাকে অজ্ঞাত। ফলে পরিচয় সনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা গেলেও বেশীরভাগ মৃতদের বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন কাফন করতে হয় তাদের।

এই অনাকাঙ্খিত মৃত্যুর মিছিল থামাতে তিনি বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নিষিদ্ধ আইনগুলি যেমন- ছাদে ভ্রমণ না করা, দুই বগীর মধ্যস্থলে ভ্রমণ না করা, স্টেশনের ওভারব্রিজ ব্যবহার করে পারাপার হওয়া, চলতি ট্রেনে ওঠা-নামা না করাসহ রেল ক্রসিংয়ের গেইটেগুলিতে সিগন্যাল অমান্য করে চলাচল না করার জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।

অর্থসূচক/এমএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ