ArthoSuchak
বুধবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পাসপোর্ট ছাড়া ৭২ ঘণ্টার জন্য ভারত গমনের সুবিধা দাবি

পাসপোর্ট ছাড়া ৪৮ বা ৭২ ঘণ্টার জন্য ভারতে আত্মীয়ের বাসা থেকে যাতে বাংলাদেশি নাগরিকরা ঘুরে আসতে পারেন, সে পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন বিজিবির মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী এমন অনেক গ্রাম আছে, যেখানকার মানুষের একটা ঘর বাংলাদেশের ভেতর, অন্য ঘর ভারতে। নানা রকম উৎসবে এক পরিবার অন্য পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চায়। সদ্য শেষ হওয়া ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ও বিজিবির উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, আমরা পাসপোর্ট ছাড়া শুধু লিখিত রেখে ৪৮ বা ৭২ ঘণ্টার জন্য সীমান্তবর্তী গ্রামের মানুষদের চলাচল করার অনুমোদন দিতে পারি। এ বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা চলছে।

আজ বৃহস্পতিবার (০২ জানুয়ারি) দুপুরে বিজিবি সদরদপ্তরে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন বিজিবি মহাপরিচালক মেজর জেনারেল সাফিনুল ইসলাম।

ভারতে নাগরিকত্ব তালিকা (এনআরসি) এবং সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) সংকটের পর গত দুই মাসে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে ৪৪৫ জনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। আটক সবাই বাংলাদেশি। তারা বিভিন্ন সময়ে ভারতে কাজের সন্ধানে গিয়েছিলেন দাবি বিজিবি প্রধানের।

তিনি বলেন, গত এক বছরে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে নারী-শিশুসহ ৯৭২ জনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় ২৫৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটক সবার বাড়ি বাংলাদেশে; স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে আমরা বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছি। তারা বিভিন্ন সময়ে দালালের মাধ্যমে কাজের সন্ধানে পাড়ি দিয়েছিলেন বা পাড়ি দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন।

ভারতে নাগরিকত্ব আইন সংকটের পর অনুপ্রবেশের সংখ্যা জানতে চাইলে বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, গত নভেম্বর এবং ডিসেম্বরে ৪৪৫ জন অনুপ্রবেশ করেছেন। বিশেষ করে ঝিনাইদহ, মহেশপুর এবং সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে। তারাও সবাই বাংলাদেশের নাগরিক। কাজের সন্ধানে তারা সে দেশে পাড়ি দিয়েছিলেন। অনেকে বেঙ্গালুরুতে কাজ করতেন। নাগরিকত্ব আইন সংকটের পর তারা দেশে ফিরেছেন।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম বলেন, ভারতে নাগরিকত্ব আইন সংকট নিয়ে বিজিবি উদ্বিগ্ন নয়। সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে আমাদের দায়িত্ব আছে। অবৈধভাবে কেউ সীমান্ত অতিক্রম করতে পারবে না। এটি আমাদের রুটিন দায়িত্ব। এনআরসি বা সিএএ ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ