জিপিএ-৫ তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী
বুধবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

জিপিএ-৫ তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, জিপিএ-৫ উন্মাদনা থেকে আমাদের বের হতে হবে। এজন্য জিপিএ-৫ উঠিয়ে দিয়ে আগামী বছর থেকে পরীক্ষার ফল সর্বোচ্চ ৪ সূচক (সিজিপিএ) করার পরিকল্পনা হচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে ফলাফল তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী। এ সময় তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. দীপু মনি বলেন, বাচ্চাদের ওপর পড়ালেখার চাপটা অনেক বেশি, আমরা সেটা কমিয়ে আনন্দময় করার প্রয়াস নিচ্ছি। বাচ্চাদের চেষ্টা, শিক্ষক ও অভিভাবকদের কষ্টে একটি ফল আসে। অনেক সময় নেতিবাচক শব্দ ব্যবহার করা হয় এতে বাচ্চারা কষ্ট পায়।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা যত কম জিপিএ-৫ নিয়ে কথা বলব তত আমাদের শিক্ষার্থীদের জন্য ভাল, শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য ভাল। এই যে জিপিএ-৫ এর উন্মাদনা এটিকে আমরা আমাদের শিশুদের পুরো শিক্ষা জীবনটাকে একেবারে নিরানন্দময় তো করছি তার সঙ্গে বিষিয়ে দিচ্ছি। তাদের ওপর যে অবিশ্বাস্য রকমের চাপ। পরিবারের দিক থেকে, বন্ধু বান্ধবের দিক থেকে জিপিএ-৫ পাওয়ার যে চাপ এটা বন্ধ করতে হবে। জিপিএ-৫ জীবনের একমাত্র লক্ষ্য হতে পারে না।

‘জিপিএ-৫ জিনিসিটা আসলে মাথা বের করে দেওয়া উচিত। আমাদের শিক্ষার্থীরা শিখছে কিনা, আনন্দের সাথে শিখছে কিনা, সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে সহযোগিতা করতে পারছি কিনা তা লক্ষ্য করা উচিত।’

কিভাবে পরীক্ষার ফল মূল্যায়ন করতে পারি প্রধানমন্ত্রীরও কিছু নির্দেশনা সামনের বছর চালু করে দিতে পারলে খুবই ভাল হবে। আমরা বলেছিলাম এ বছর করতে পারি কিনা। এ বছর করতে পারলে অনেক বেশি তাড়াহুড়ো হয়ে যাবে। তাড়াহুড়া করে পরিবর্তন করা সমীচীন হবে না। আমরা হয়তো আগামী বছর থেকে শুরু করব। ২০২০ সালে জিপিএ ৫ তুলে দেওয়া হবে আশা করছি, যোগ করেন শিক্ষামন্ত্রী।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ