ArthoSuchak
শনিবার, ৪ঠা এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নির্বাচনের ত্রুটি নিয়ে বলার আগে মাহবুব তালুকদারের পদত্যাগ করা উচিত ছিল: তথ্যমন্ত্রী

আসন্ন ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে খুলনা, বরিশাল ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি দেখতে চান না বলে মন্তব্য করেছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার।তার সেই মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

হাছান মাহমুদ বলেন, নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও নির্বাচনী ব্যবস্থা নিয়ে কমিশনার মাহবুব তালুকদার যেসব কথা বলেছেন, এতে তার পদত্যাগ করে তারপর বলা উচিত ছিল। পদে থেকে এ ধরনের কথা বলা নিজের সঙ্গেই প্রতারণার শামিল। তবে ইসির বক্তব্য নির্বাচন কমিশনের স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট করবে না বলে দাবি করেন তিনি

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

গতকাল বুধবার নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, খুলনা, বরিশাল ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পুনরাবৃত্তি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে দেখতে চাই না।

তিনি আরও বলেন, ‘কেন নির্বাচন নিরপেক্ষ, শুদ্ধ ও গ্রহণযোগ্য হয় না? এ প্রশ্নের উত্তর আত্মজিজ্ঞাসার কারণেই আমাকে খুঁজতে হয়েছে। আমার নিজের অভিজ্ঞতা হচ্ছে, নির্বাচন কমিশন আইনত স্বাধীন কিন্তু বাস্তব ক্ষেত্রে এই স্বাধীনতা নির্বাচন প্রক্রিয়ার কাছে বন্দি। এ জন্য নির্বাচন প্রক্রিয়ার সংস্কার প্রয়োজন। নির্বাচন যদি গণতন্ত্রের পূর্বশত হয় তাহলে গণতন্ত্রের পদযাত্রা অবারিত করতে নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ হতে হবে।’

নির্বাচন কমিশনের সংস্কার নিয়ে মাহবুব তালুকদারের বক্তব্যে প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কার হয়েছিল। সংস্কার একটি চলমান প্রক্রিয়া। যুগের চাহিদা অনুযায়ী এটি চলতেই থাকবে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন সংস্কার একটি চলমান প্রক্রিয়া, যা যুগের প্রয়োজনে, সময়ের প্রয়োজনে যেকোনো সময় হতে পারে। এক সময় আমাদের দেশে হাত তুলে ভোট দেয়া হতো। পরে সে ভোট ব্যালটের মাধ্যমে দেয়া শুর হয়। এখন আবার ইভিএম মেশেনে দেয়া হচ্ছে।’

‘কিন্তু তিনি যে অন্য প্রসঙ্গগুলো বলেছেন, আমি মনে করি, সেগুলো স্বপদে থেকে বলা হলে সেগুলো আত্মপ্রবঞ্চনা। মাহবুব তালুকদার সবসময় এ ধরনের কথা বলে আলোচনায় থেকেছেন। তিনি এ ধরনের দ্বিমত প্রকাশ করে আলোচনায় থাকার চেষ্টা করেছেন। এটিই প্রতিয়মান হয়। এতে করে নির্বাচন প্রক্রিয়া প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।’

অর্থসূচক/এমএস

এই বিভাগের আরো সংবাদ