ArthoSuchak
শনিবার, ১১ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নতুন বছরে মন্ত্রিসভায় চমক আসতে পারে: কাদের

নতুন বছরে মন্ত্রিসভায় হয়ত চমক আসতে পারে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় রদবদল এটি রুটিন ওয়ার্ক। সময়ে সময়ে পুনর্বিন্যাস হয়। নতুন বছরে হয়ত চমক আসতে পারে।

ফাইল ছবি

আজ রোববার (২২ ডিসেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে সেতু মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

আগের কমিটিতে থাকা সাতজন মন্ত্রী এবারের কমিটিতে নেই, এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলে কিছু নতুন মুখ এসেছে। দায়িত্বের পরিবর্তনও হয়েছে। সেটা দলকে আরো শক্তিশালী করার জন্য। এজন্য কাজে গতিশীলতা আসতে সাফল-রিসাফল হয়েছে। গত তিন বছর যারা দায়িত্ব পালন করেছিলেন তাদের মধ্য থেকে কাদের যে বাদ দেবো সেটি সিদ্ধান্ত নিতে বেশ কষ্ট হয়েছে। নন পারফরমার কাউকে দেখি না।

তিনি বলেন, ঝড়, বন্যা, ডেঙ্গুসহ এমন কোনো প্রোগ্রাম নেই যেখানে কমিটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন না। কাউকে বাদ দেয়া ছিল ডিফিকাল্ট। এখনও উপরের দিকে কিছু পদ ও আর ওয়ার্কিং কমিটির পুরোটা ফাঁকা রয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, পুরো কমিটি ঘোষণার পর মূল্যায়ন করা যাবে। অনেক মন্ত্রী আগের কমিটিতে ছিলেন এবার নেই, হয়ত ওয়ার্কিং কমিটিতে স্থান পেতে পারেন। যার নির্দেশনায় পার্টি চলে তার কিছু স্ট্রাটেজি আছে, তার অভিজ্ঞতা ৩৮ বছরের।

দ্বিতীয় মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি ফিরে আসব সেটা ভাবিনি। ফিরে আসলেও কর্মক্ষমতা পাবো তা অনেকে ভাবেনি। গত দুই তিন মাস সম্মেলনকে সামনে রেখে অনেকগুলো জেলা সম্মেলনে যোগ দিয়েছি। পর পর চারদিন চার জেলায় কমিটি হয়েছে, সেখানেও ছিলাম। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হয়োছি। নেত্রী আমার ওপর আস্থা রেখেছেন। আস্থা রেখে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে দায়িত্ব দিয়েছেন। সেই আস্থার জন্য আমার ঘাম-শ্রম আমি নিয়োগ করব।

অনেক কাজ সামনে আছে। অনেক চ্যালেঞ্জ আছে। সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ নির্বাচনী অঙ্গীকার। নির্বাচনের আগে জাতির সামনে নেত্রী যে ওয়াদা করেছিলেন তা পূরণ করতে হবে। সেজন্য আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালী করতে হবে, স্মার্ট করতে হবে, যোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ