পেঁয়াজের মালা পড়ে সংসদে বিরোধীদের বিক্ষোভ
সোমবার, ২০শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পেঁয়াজের মালা পড়ে সংসদে বিরোধীদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশের মতো ভারতের বাজারেও পেঁয়াজের দাম এখন চড়া। দশ রুপি কেজির পেঁয়াজের দাম ইতোমধ্যে ১৫০ রুপি ছাড়িয়েছে। মূল্যবৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় ভারতের সংসদে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করেছে কংগ্রেসসহ বিভিন্ন বিরোধী দল। দিল্লি, কলকাতা, আসামসহ দেশটির বিভিন্ন রাজ্যে মানুষ বিক্ষোভ করেছে।

Congress-Onion

বৃহস্পতিবার ভারতের সংসদ অধিবেশন শুরুর আগে সংসদ চত্বরে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড হাতে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানান বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতারা। এদের অনেকের গলাতেই ছিল পেঁয়াজের মালা। প্রতিবাদে যোগ দেন জামিনে জেল থেকে বের হয়ে আসা সাবেক অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। রাজ্যসভায় কংগ্রেসের এই নেতা সরকারের বিরুদ্ধে বেশ ঝাঁজালো বক্তব্য দেন।

এর আগে পেঁয়াজের বাজারমূল্য নিয়ন্ত্রণে আনার পদক্ষেপ নিয়ে সংসদে এক প্রশ্নের উত্তরে দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ ‘পেঁয়াজ প্রায় খান না’ মন্তব্য করে সমালোচনার মুখে পড়েন। সাবেক অর্থমন্ত্রী চিদরম্বন বর্তমান অর্থমন্ত্রী সীতারমণের উদ্দেশে বলেন, আপনি পেঁয়াজ খান না, তাহলে কী অ্যাভাকাডো খান?

খবর এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আনন্দবাজার পত্রিকার

Onion-price-Ahmedabad.jpg

ভারতের আহমেদাবাদ শহরেও বিরোধী দল কংগ্রেস পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে। একজন কংগ্রেস কর্মী এমন সাজে বিক্ষোভে অংশ নেন

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার অধিবেশন শুরুর আগে সংসদ চত্বরে বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড হাতে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানান বিরোধী দল কংগ্রেসের নেতারা। এতে যোগ দেন সম্প্রতি জামিনে জেল থেকে ছাড়া পাওয়া পাওয়া সাবেক অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমও। রাজ্যসভায় কংগ্রেসের এই নেতা সরকারের বিরুদ্ধে বেশ ঝাঁজালো বক্তব্য দেন।

সংসদেও কংগ্রেস সদস্যদের তোপের মুখে পড়েন ক্ষমতাসীন বিজেপির মন্ত্রীরা। এনসিপিসহ বিভিন্ন বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরাও পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধিতে প্রতিবাদ জানিয়ে বক্তব্য দেন।

এদিন কংগ্রেস, আম আদমি পার্টিসহ বিভিন্ন বিরোধী দল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের পেঁয়াজ না খাওয়া নিয়ে বক্তব্যের সমালোচনা করে টুইট করে। লোকসভায় বুধবার অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করা হয়েছে। পাশাপাশি মিসর ও তুরস্ক থেকে আমদানির চিন্তাভাবনা চলছে।

এ সময় এক সংসদ সদস্য তাকে প্রশ্ন করেন, আপনি কি মিসরের পেঁয়াজ খান? উত্তরে সীতারমণ বলেন, আমি খুব বেশি পেঁয়াজ-রসুন খাই না, তাই চিন্তার কোনো কারণ নেই। আমি এমন পরিবারের মানুষ যেখানে পেঁয়াজ নিয়ে লোকজনের খুব বেশি মাথাব্যথা নেই।

এরপরই বিরোধীরা তাকে ‘ম্যারি আঁতোয়ানেত’ বলে সম্বোধন করতে থাকেন। ফ্রান্সে রাজা ষোড়শ লুইয়ের জমানায় খাদ্য সংকট চলাকালে রানী আঁতোয়ানেত প্রজাদের পাউরুটি খেয়ে থাকতে বলেছিলেন। চিদম্বরম অর্থমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বলেছেন, উনি কি অ্যাভোকাডো খান?

এদিকে ভারতের অন্যান্য রাজ্যের মতো পশ্চিমবঙ্গেও পেঁয়াজের দাম এক মাসের ব্যবধানে কয়েকগুণ বেড়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, রাজ্যের বিভিন্ন বাজারে বৃহস্পতিবার পেঁয়াজ ১৫০-১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে। মূল্যবৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে গঠিত রাজ্য সরকারের টাস্কফোর্স জানিয়েছে, চলতি মাসে সংকট কেটে যাওয়ার সম্ভাবনা কম। ওদিকে দিল্লিতেও পেঁয়াজের দাম শতের কোটা ছাড়িয়েছে। পাইকারি ব্যবসায়ী ও আড়তদারের জন্য মজুদের ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দেয়া হলেও এখনও এর সুফল দেখা যাচ্ছে না। চাহিদা অনুযায়ী বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ কম। দাম বাড়ায় কমে গেছে পেঁয়াজের বিক্রিও।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ