বিএনপির মুখের ভাষার ওপর আমাদের নিয়ন্ত্রণ নেই: কাদের
সোমবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বিএনপির মুখের ভাষার ওপর আমাদের নিয়ন্ত্রণ নেই: কাদের

‘সরকার সবক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে’– বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতির ওপর আমাদের নিয়ন্ত্রণ আছে। কিন্তু আমাদের নিয়ন্ত্রণ নেই একটি জায়গায়। সেটি হলো– বিএনপির মুখের ভাষার ওপর। তাদের যে মুখের ভাষা– মিথ্যাচার, অপপ্রচারের ওপরে আমাদের কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই।

আজ শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যুবলীগের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেসের প্রস্তুতি ও মঞ্চ পরিদর্শন করতে গিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা বলেন।

অনেক জায়গায় এখনো যান চলাচল স্বাভাবিক হয়নি- এ বিষয়ে জানতে চাইলে সেতুমন্ত্রী বলেন, সড়ক পরিবহন নিয়ে যে সমস্যা ছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনার পর গভীর রাতে সমাধান হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে ঢাকাসহ আশপাশের এলাকায় সব ধরনের যান চলছে। কোথাও কোথাও বিঘ্ন ঘটেছে, এটা আজ থেকে স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

যুবলীগের কেন্দ্রীয় কংগ্রেসের দিন ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের নেতৃত্ব ঘোষণা করা হবে কিনা জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, সম্মেলন ছাড়া উত্তর-দক্ষিণ কমিটি আমরা করবো কীভাবে? আশা করছি, আমাদের জাতীয় কাউন্সিলের পর মহানগর উত্তর ও দক্ষিণেরটা আয়োজন করবে যুবলীগের নতুন কমিটি।

তিনি বলেন, যুবলীগের নেতৃত্ব বাছাই কাউন্সিলররা ঠিক করবেন। তাদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা হবে। তাদের সম্মতিতে পরবর্তী নেতৃত্ব আসবে। এখানে অবশ্যই আমাদের অভিভাবক সভাপতি শেখ হাসিনার মূল্যবান পরামর্শ আমরা নেবো নেতৃত্বের দ্বার উন্মোচনে। এখানে কে নেতা হবেন এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। কাউন্সিল সেশনে চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদকের নাম প্রার্থিতা আসবে। অধিক প্রার্থী থাকলে তাদের একজন হওয়ার জন্য সময় দেবো। সেই সময়সীমার মধ্যে কম্প্রোমাইজ না হলে উপস্থিত নেতা ও সর্বোপরি আমাদের নেত্রীর সঙ্গে আলাপ করে নতুন কমিটির চেয়ারম্যান-সম্পাদকের নাম ঘোষণা করবো।

‘যদি যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ শেখ ফজলুল হক মণির রক্তের উত্তরাধিকার কাউকে এখানে চায় পরবর্তী নেতা হিসেবে, সেটা অবশ্যই যুবলীগের অধিকার আছে।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এখন যারা আছেন তারা নতুন কমিটি ঘোষণা পর্যন্ত সম্মেলনে থাকতে পারবেন।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংঘঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক চয়ন ইসলাম, যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, আগামীকাল শনিবার (২৩ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সপ্তম জাতীয় কংগ্রেস-২০১৯ অনুষ্ঠিত হবে।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ