'দেশে ডায়াবেটিস রোগী প্রায় ৭০ লাখ'
শনিবার, ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘দেশে ডায়াবেটিস রোগী প্রায় ৭০ লাখ’

১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়েবেটিস দিবস। এ ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ নিউট্রিশন এন্ড ডায়াবেটিস ফোরাম (বিএনডিএফ) এবং বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ফর প্যারেন্টেরাল এন্ড এন্টেরাল নিউট্রিশন (বিডিএপিইএন) এর যৌথ উদ্যোগে ও মানুষের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশন আপডেট-২০১৯।

আজ শুক্রবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিলনায়তনে দিনব্যাপী এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য শবনম জাহান শিলা বলেন, ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ, যা উইপোকার মত শরীরের ভিতর থেকে ধীরে ধীরে শরীরকে শেষ করে দেয়। কিন্তু আমরা যদি একটু সচেতন হই তাহলে ডায়াবেটিস থেকে আমরা রক্ষা পেতে পারি।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে প্রথমবারের মতন বাংলাদেশে এ সেমিনারের আয়োজন করার জন্য বিএনডিএফ ও বিডিএপিইএন’কে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, বর্তমান বাংলাদেশের জন্য এ সেমিনার একটি যোগপযোগী পদক্ষেপ। বিশ্ব ডায়াবেটিস ফাউন্ডেশনের হিসাব মতে বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা প্রায় ৭০ লাখ। এর মধ্যে ৫৭ শতাংশ রোগী জানে না ডায়াবেটিস হলে তাদের খাবার কি বা কখন কি খেতে হবে। কোন কোন ওষুধ খেতে হবে। কখন কি পরিমাণ খাদ্য তাদের গ্রহণ করা প্রয়োজন। ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ, যা নিরাময় নয়, নিয়ন্ত্রণ রাখা সম্ভব। যা অনেকটাই নির্ভর করে খাদ্যের নিয়ন্ত্রণের উপর।

তিনি বলেন, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য সবচেয়ে বড় প্রয়োজন হচ্ছে সঠিক পথ্য। আর তা দিতে পারেন কেবলমাত্র দক্ষ পুষ্টিবিদরাই। দেশের সব সরকারি হাসপাতাল এবং বেসরকারি হাসপাতালে যাতে বাধ্যতামূলকভাবে পুষ্টিবিদ নিয়োগ দেয়া হয় সে বিষয়ে সংসদে প্রস্তাব রাখবেন বলেও আশ্বাস দেন তিনি।

সরকারি হোম ইকোনমিক্স কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ অধ্যাপক শাহীন আহমেদের সভাপতিত্বে এবং ডায়টেশিয়ান ইমদাদ হোসেন শপথের সঞ্চালনায় সেমিনারে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ডাক্তার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ সিকদার (প্রো-ভিসি, বিএমএমএমইউ), প্রফেসর হাজেরা মাহতাব (মেডিসিন অ্যান্ড এন্ড্রোক্রাইনোলজি বার্ডেম), প্রফেসর ডাঃ লিয়াকত আলী (উপদেষ্টা, বিআইএইচএস), ডাঃ শুভাগত চৌধুরী (ডিরেক্টর, বাডাস) এবং ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. এ কে মাহবুবুল হক (হাসপাতাল ডিরেক্টর, বিএমএমএমইউ)।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ডাঃ তারিন আহমেদ (হেড অফ এডুকেশ, বার্ডেম), তামান্না চৌধুরী (প্রিন্সিপাল ডায়টেশিয়ান, এপোলো হাসপাতাল ঢাকা), চৌধুরী তাসনিম হাসিন (চীফ ডায়েটিশিয়ান এন্ড হেড অফ নিউট্রিশন, ইউনাইটেড হাসপাতাল), ডাঃ আরিফ মাহমুদ (হেড অফ মেডিক্যাল সার্ভি, এপোলো হাসপাতাল ঢাকা) প্রফেসর ডাঃ ফারুক পাঠান (প্রফেসর এন্ড প্রেসিডে, বাংলাদেশ এন্ড্রোকাইন সোসাইটি) প্রমুখ।

বাংলাদেশ ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশন আপডেট-২০১৯ সেমিনারের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে ডায়াবেটিস ও পুষ্টি বিষয়ক সাম্প্রতিক তথ্য সম্পর্কে খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞানের ছাত্র-ছাত্রী, ডায়েটিশিয়ান ও নিউট্রিশনিস্ট ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে অবগত করা।

অর্থসূচক/এনএম/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ