সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে সূচক কমেছে ৬১.৫৫ পয়েন্ট
শুক্রবার, ১১ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে সূচক কমেছে ৬১.৫৫ পয়েন্ট

বিদায়ী সপ্তাহে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সব ধরনের মূল্য সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসই এক্স কমেছে ৬১.৫৫ পয়েন্ট বা ১.২৯ শতাংশ। তবে ডিএসইতে গড় লেনদেন বেড়ছে ৫.৬০ শতাংশ।

Weekly-Market.jpg

তথ্যমতে, গত সপ্তাহে ডিএসইতে ৪ কার্যদিবসে মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৩৯৮ কোটি ১৮ লাখ ৯৫ হাজার  টাকা। আগের সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে লেনদেনের পরিমাণ ছিল ১ হাজার ৬৭৩ কোটি ৮৮ লাখ ৭ হাজার  টাকা। এক সপ্তাহের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ২৭৫ কোটি ৬৯ লাখ ১২ হাজার ৬৬৩ টাকা বা ১৬ দশমিক ৪৭ শতাংশ। এবং গড়ে লেনদেন বেড়েছে ১৮ কোটি ৫২ লাখ ১৯ হাজার  টাকা। গত সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩৪৯ কোটি ৫৪ লাখ ৭৩ হাজার  টাকা, এবং তার আগের সপ্তাহে গড়ে লেনদেন হয়েছে ৩৩১ কোটি ২৫  লাখ ৩ হাজার  টাকা।

আলোচ্য সময়ে ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এ’ ক্যাটাগরির শেয়ারের দখলে ছিল ৭৯ দশমিক ৫০ শতাংশ।  গেলো সপ্তাহে ‘বি’ ক্যাটাগরির শেয়ারের অংশগ্রহন ছিল ১২ দশমিক ৭৭ শতাংশ। ডিএসইর মোট লেনদেনে ‘এন’ ক্যাটাগরির অংশগ্রহন ছিল ৫ দশমিক ৫৬ শতাংশ।  ডিএসইর লেনদেনে গেলো সপ্তাহে ‘জেড’ ক্যাটাগরির দখলে ছিল ২ দশমিক ১৮ শতাংশ।

আলোচ্য সপ্তাহে ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসই এক্স ৬১.৫৫ পয়েন্ট বা ১.২৯ শতাংশ কমেছে। অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরীয়াহ সূচক কমেছে ৮.৬৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৯ শতাংশ। এছাড়া গেলো সপ্তাহে ডিএসই৩০ সূচক কমেছে ১৯.৬৭ পয়েন্ট বা ১.১৯ শতাংশ।

এদিকে, গত সপ্তাহে ৬২ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। আলোচ্য সময়ে  ৩৫৭টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এরমধ্যে বেড়েছে ১০৬টি, কমেছে ২২২টি, অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি এবং লেনদেন হয়নি  ২টি কোম্পানির শেয়ার।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহে ১৮৭ কোটি ৪১ লাখ ৮৮ হাজার টাকা লেনদেন হয়েছে। আলোচ্য সপ্তাহে সিএসইতে সার্বিক সূচক কমেছে ১.০৭ শতাংশ।

সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৯৬ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৯টির, কমেছে ১৮৯টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টি কোম্পানির শেয়ার দর।

অর্থসূচক/এসএ/

এই বিভাগের আরো সংবাদ