মান্দায় যৌতুকলোভীর লাথিতে স্ত্রীর মৃত্যু

nagongসোমবার সকালে নওগাঁর মান্দায় স্বামীর লাথির আঘাতে স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার তালপাতিলা গ্রামের আবুল হোসেন জানান তার মেয়ে জেসমিন সেবা (২১) ২০০৮ সালে উপজেলার চককামদের কারিগরি কলেজে লেখাপড়ার সময় তালপাতিলা গ্রামের পল্লী চিকিৎসক আকিমুদ্দীন মোল্লার ছেলে আল আমিন ফেন্সির সঙ্গে জেসমিনের প্রেমের সর্ম্পক গড়ে ওঠে। পরে ২০১০ সালে উভয় পরিবারের সম্মতিতে তাদের বিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকে শাশুড়ি বেদেনা বিবিসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা  মোটা অংকের  যৌতুকের দাবিতে জেসমিনকে নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। গত রোববার দিনভর শাশুড়ি তার ওপর মানষিক নির্যাতন চালায়। এনিয়ে সোমবার বেলা ১০টার দিকে জামাতা তাকে হত্যা করে বলে তিনি দাবি করেন।

প্রতিবেশিরা জানান, অমতে বিয়ে করায় জেসমিনকে পুত্রবধূ হিসেবে পরিবারের মেনে নেননি। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে শ্বশুর পরিবারের লোকজন জেসমিনের ওপর প্রায়ই নির্যাতন করত। ঘটনার দিন সকালে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে স্বামী ফেন্সি তাকে পেটে লাথি মারে। এতে ঘটনাস্থলেই জেসমিনের মৃত্যু হয় বলে তারা জানান। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

সাকি/