ভিসির বাসভবনের সামনে আন্দোলনকারীরা, সতর্ক অবস্থানে পুলিশ
বৃহস্পতিবার, ২১শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ভিসির বাসভবনের সামনে আন্দোলনকারীরা, সতর্ক অবস্থানে পুলিশ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের অপসারণের দাবিতে আবারও ভিসির বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন প্রশাসনিক ভবনের সামনে সংহতি সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিকাল ৪টা ৫০ মিনিটে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে এসে অবস্থান নেন আন্দোলনকারীরা।

হল ছাড়ার নির্দেশ প্রত্যাখ্যান করে উপাচার্যের অপসারণ দাবিতে অবস্থান নেন তারা। উপাচার্যের বাসভবন ঘিরে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করা পুলিশের সামনেই অবস্থান নেন বিক্ষুব্ধ আন্দোলনকারীরা।

এদিকে উপাচার্যের বাসভবন ঘিরে রেখেছেন প্রায় দেড় শতাধিক পুলিশ। আন্দোলনকারীরা বলছেন, ভিসির বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। তাই তার অপসারণের জন্য আমরা সংশ্লিষ্টদের কাছে দাবি জানিয়েছি। কিন্তু উপাচার্য নিজেও পদত্যাগ করছেন না, তাকে সরানোও হচ্ছে না।

তারা বলেন, এ অবস্থায় জাহাঙ্গীরনগরকে দুর্নীতিমুক্ত করতে শান্তিপূর্ণ অবস্থান কর্মসূচি পালন করছি। কিন্তু আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশি হামলার আশঙ্কা করছি আমরা।

আন্দোলনকারী এক শিক্ষক বলেন, আমরা শঙ্কার মধ্যে আছি। যে প্রশাসন ছাত্রলীগ দিয়ে আমাদের ওপর হামলা করিয়েছে তারা পুলিশ দিয়ে নিজেদের বেষ্টিত করে রেখেছে। যেকোনো সময় তারা হামলাও চালাতে পারে।

এদিকে যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য পুলিশ সদস্যরা প্রস্তুত রয়েছেন বলে জানিয়েছেন পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল হক।

তিনি বলেন, এখানে একশর উপর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য আমরা প্রস্তুত রয়েছি।

হল বন্ধ ঘোষণা করার প্রেক্ষিতে কোন অভিযান চালানো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাইলে আমরা যেকোনো ধরনের সহায়তা করবো।

এর আগে আজ বুধবার বিকাল সাড়ে ৩টার মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এর মধ্যে হল না ছাড়লে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করা হয়। দুপুর ২টার দিকে হল প্রভোস্ট কমিটির বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি অধ্যাপক বশির আহমেদ এই তথ্য জানান।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ