'কাশ্মীরিদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছে, পরিণাম ভয়ঙ্কর হবে'
রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘কাশ্মীরিদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছে, পরিণাম ভয়ঙ্কর হবে’

জম্মু-কাশ্মীর ইস্যুতে ক্রমেই উত্তেজিত হয়ে উঠছে ভারত। এরই মধ্যে জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক দুই মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে রাজ্যের শীর্ষ নেতা সাজাদ লোনসহ একাধিক নেতাকে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানায়, গতকাল রোববার গভীর রাত থেকে শ্রীনগরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি থাকবে বলে জানানো হয়। এর জের ধরে কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে নতুন করে সংকট তৈরি হলো।

এদিকে ভারতের জম্মু-কাশ্মীরকে দেওয়া ‘বিশেষ মর্যাদা’ তুলে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আজ সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে মন্ত্রিসভার একটি বৈঠকের পর সংসদে এ ঘোষণা দেন তিনি।

দেশটির সংবিধানের ৩৭০ ধারার ফলে জম্মু-কাশ্মীরে চালু ছিল এই ‘বিশেষ মর্যাদা’। এরই মধ্যে ৩৭০ ধারার অবলুপ্তিতে সই করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ।

এরপর গৃহবন্দি ওমর আবদুল্লাহ এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘ভারত সরকারের আজকের একতরফা এবং হতাশাজনক সিদ্ধান্ত কাশ্মীরের বাসিন্দাদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করার শামিল। এই সিদ্ধান্তের ভয়ঙ্কর পরিণাম হতে পারে। এই সিদ্ধান্তে কাশ্মীরিদের প্রতি সরকারের আগ্রাসী মনোভাব প্রকাশ পাচ্ছে। ১৯৪৭ সালে দেশ ভাগ হওয়ার পর থেকে কাশ্মীরের বাসিন্দাদের সঙ্গে এই রকম বিশ্বাসঘাতকতা কোনো সরকার করেনি।’

এ ব্যাপারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান, জম্মু ও কাশ্মীর পুনর্গঠিত হবে। রাজ্যটি দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত হবে। একটি জম্মু ও কাশ্মীরে, অন্যটি লাদাখে।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ