ইতিহাস বদলাতে দেয়নি কোহলিরা
শুক্রবার, ২৯শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ইতিহাস বদলাতে দেয়নি কোহলিরা

পাকিস্তানের বিপক্ষে চলতি বিশ্বকাপের আগের ৬ দেখায় ৬ বারই জয় পেয়েছিল ভারত। গতকাল রবিবার ম্যানচেষ্টারে সপ্তম দেখায়ও ইতিহাস বদলাতে দেয়নি ভারত। বৃষ্টি আইনে সরফরাজ আহমেদের দলকে ৮৯ রানে হারিয়েছে ভিরাট কোহলির দল। যার সুবাদে এই নিয়ে বিশ্বকাপে দুই দলের সাত বারের দেখায় ৭ বারই জয় পেল ভারত।

জয়ের জন্য পাকিস্তানকে ৩৩৭ রানের বিশাল লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল ভারত। পাহাড় সমান লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার ইমাম উল হককে হারিয়ে বসে পাকিস্তান। ভুমনেশ্বর কুমার ইনজুরির কারণে উঠে গেলে তাঁর পরিবর্তে বোলিং করতে আসা বিজয় সঙ্কর আঘাত হানেন পাকিস্তান শিবিরে। ইমামকে ৭ রানে লেগ বিফরের ফাঁদে ফেলেন তিনি। প্রথম উইকেট হারালেও আরেক ওপেনার ফখর জামান এবং বাবর আজম মিলে হাল ধরেন দলের পক্ষে। দুজন মিলে শত রানের জুটি গড়ে দলকে আশার আলো দেখাতে থাকেন।

কিন্তু দলীয় ১১৭ রানে কুলদিপ যাদবের ঘূর্ণিতে ৪৮ রানে বোল্ড হোন বাবর। এরপরই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয় ভারত। ৬২ রানে আরেক ওপেনার ফখরকেও বিদায় করেন তিনি। এরপর বোলিংয়ে এসে পর পর দুই বলে অভিজ্ঞ দুই ক্রিকেটার মোহাম্মদ হাফিজ এবং শোয়েব মালিককে বিদায় করেন হার্দিক পান্ডিয়া।

ইমাদ ওয়াসিমকে নিয়ে অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ খানিকটা প্রতিরোধ গড়লেও ১২ রানে সরফরাজকে বিদায় করেন বিজয়। খানিক পর ম্যাচে হানা দেয় বৃষ্টি। দীর্ঘ সময় খেলা বন্ধ থাকার পর বৃষ্টি আঈণে শেষ ৩০ বলে ১৩৬ রান প্রয়োজন হয় পাকিস্তানের। ৪০ ওভারে পাকিস্তানের লক্ষ্য দাড়ায় ৩০২ রান। সেখান থেকে ভারতের জয়টা ছিল মাত্র সময়ের। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৪০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ২১২ রান করতে সক্ষম হয় পাকিস্তান। দারুণ এক জয় তুলে নেয় ভারত। এই ম্যাচে হারের ফলে পাকিস্তানের জন্য সেমিফাইনালের সমীকরণটা অনেক কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে এখন।

এর আগে প্রথমে টসে জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান পাকিস্তানের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। প্রথমে ব্যাট করে রোহিত শর্মার ১৪০ এবং অধিনায়ক ভিরাট কোহলির ৭৭ রানের উপর ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩৬ রানের পুঁজি পায় কোহলি বাহিনী। পাকিস্তানের পক্ষে মোহাম্মদ আমির ৪৭ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট।

অর্থসূচক/এএইচআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ