ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে মেট্রোরেলের পূর্ত কাজ
সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে মেট্রোরেলের পূর্ত কাজ

রাজধানীবাসীর বহুল প্রত্যাশিত মেট্রোরেল ‘এমআরটি লাইন সিক্স’ বাস্তব রুপ ধারণ করতে শুরু করেছে। উত্তরার দিয়াবাড়ি হতে পল্লবী হয়ে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রথম পর্যায়ে প্রকল্পের অগ্রগতি ৪৬ ভাগ। এছাড়া উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত সার্বিক কাজের অগ্রগতি ২৯ শতাংশে পৌঁছেছে বলে জানা গেছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) এর সহকারী প্রকল্প পরিচালক খান মো. মিজানুল ইসলাম বলেন, কাঙ্খিত গতিতেই মেট্রোরেলের কাজ আগাচ্ছে। আমরা আশা করছি আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই সংশোধিত কর্মপরিকল্পনা অনুযায়ী প্রথম পর্যায়ের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার পূর্ত কাজ শেষ হবে।

উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পুরো পথে থাকবে ১৬টি স্টেশন। এ পথে ১৪ জোড়া ট্রেন চলাচল করবে। প্রতিটি ট্রেন এক হাজার ৬৯৬ জন যাত্রী বহন করতে পারবে। এর মধ্যে ৯৪২ জন বসে এবং ৭৫৪ জন দাঁড়িয়ে যেতে পারবেন। ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে মেট্রোরেল ৩৭ মিনিটে উত্তরা থেকে মতিঝিল পৌঁছাবে। প্রতি চার মিনিট অন্তর ট্রেন ছেড়ে যাবে। উভয় দিক থেকে ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারবে।

উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ও আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত দুটি অংশে ভাগ করে মেট্রোরেল প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। ২০১৯ সালের মধ্যে উত্তরা থেকে আগারগাঁও অংশের উড়ালপথ এবং স্টেশন নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

জাপানে প্রস্তুত মেট্রোরেল কোচ প্যাকেজ-৩ ও ৪-এর আওতায় উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত ১১ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার ভায়াডাক্ট ও ৯টি স্টেশন নির্মাণকাজ চলছে।

কবে নাগাদ এই প্রত্যাশিত বাহনে চলাচল শুরু হবে জানতে চাইলে মিজানুল ইসলাম জানান, কবে নাগাদ উদ্বোধন হবে সেটা সম্পূর্ণ রাজনৈতিক ব্যাপার। তবে আমার মনে হয় বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এই প্রকল্পের উদ্বোধন হতে পারে।

রাজধানীর যানজটের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, বৃহত্তর সার্থে কিছুটা ত্যাগ শিকার করতেই হয়। পুরো কাজ শেষ হয়ে গেলে ঢাকা শহরে আর কোনো জ্যাম থাকবে না। তখন এই শহরেই যাতায়াত হয়ে উঠবে সহনীয়। তাছাড়া শুধু মেট্রোরেলের কারণে যানজট বৃদ্ধির বিষয়ে একমত নন তিনি। ড্রাইভার ও যাত্রীদের বিশৃঙ্খলার কারণেও জ্যাম বাড়ছে বলে মনে করেন এ কর্মকর্তা।

ঢাকার যানজট নিরসন ও নগরবাসীর যাতায়াত আরামদায়ক, দ্রুততর ও নির্বিঘ্ন করতে ২০১২ সালে গৃহীত হয় মেট্রোরেল প্রকল্প। উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে মতিঝিল পর্যন্ত এ প্রকল্পের দৈর্ঘ্য হবে ২০ দশমিক ১ কিলোমিটার। এ এলাকায় বসবাসকারী লাখো নগরবাসী মেট্রোরেল ব্যবহার করে গন্তব্যে যাতায়াত করতে পারবেন। প্রকল্পে ২৪ সেট ট্রেন চলাচল করবে। প্রত্যেকটি ট্রেনে থাকবে ৬টি করে কার।

অর্থসূচক/জেডএ/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ