মাদিবাকে জন্মগ্রামেই সমাহিত করা হবে আজ দুপুরে
বুধবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক

মাদিবাকে জন্মগ্রামেই সমাহিত করা হবে আজ দুপুরে

Mandela_3নয়নাভিরাম সবুজ পাহাড়ের ছোট্ট গ্রাম কুনু। দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্টার্ন কেপ প্রদেশের এই গ্রাম থেকেই যাত্রা শুরু হয়েছিলো তার এবং এখানেই সমাহিত করা হবে আজ। বেড়ে উঠার স্মৃতির ধারক কুনুতেই সব থেকে বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতেন তিনি, নিজের মুখে সে কথা জীবিত অবস্থায় জানিয়েও ছিলেন অনেকবার। তাই আজ দুপুরে পারিবারিক রীতিতে কুনুতেই সমাধিস্থ করা হবে বর্ণবিদ্বেষ-বিরোধী সংগ্রামের বরেণ্য এই নেতাকে। গত ৫ ডিসেম্বর ৯৫ বছর বয়সে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন মাদিবা।

 

শেষ বারের মতো তাঁকে দেখতে ভিড় জমিয়েছেন বিভিন্ন রাষ্ট্রের প্রতিনিধিসহ প্রায় চার হাজার ৫ শত মানুষ।

শনিবার প্রিটোরিয়া থেকে একটি সামরিক বিমানে করে ম্যান্ডেলার কফিনবাহী দেহ কুনুর নিকটবর্তী বিমানবন্দর মথাতায় পৌঁছায়। সেখান থেকে পদব্রজে কফিনটিকে এই রাষ্ট্রনেতার আদিবাড়ির দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রিয় মানুষটিকে শেষবারের জন্য দেখতে এবং শ্রদ্ধা জানাতে পদযাত্রায় পুরো পথটির দু’পাশে মানুষ কাতারে কাতারে ভিড় করেছিলেন।

এর আগে প্রিটোরিয়ার প্রশাসনিক ভবন ইউনিয়ন বিল্ডিংয়ে বুধবার থেকে তিন দিন শায়িত রাখা ছিল নেলসন ম্যান্ডেলার মরদেহ। সেখানে প্রথম দিন ২১ হাজার মানুষ প্রিয়নেতাকে শ্রদ্ধা জানানোর সুযোগ পেয়েছিলেন। দ্বিতীয় দিনে ‘ভাগ্যবান’ ৩৯ হাজার মানুষ সেই সুযোগ পান। শেষ দিন দেখার সুযোগ হারাতে চাননি কেউ-ই। তাই ভোর ৫টা-র সময়ও প্রিটোরিয়ার রাজপথে ছিল অন্তত ৫০ হাজার মানুষের ঢল।

কফিনে শায়িত নেলসনের শরীরে ছিল তাঁর প্রিয় সবুজ-সোনালি বাটিক প্রিন্টের জামা। দর্শনার্থীরা জানিয়েছেন, কফিনে রাখা ‘মাডিবা’র মরদেহ দেখতে কারোরই বেগ পেতে হচ্ছে না। সূত্র বিবিসি, সিএনএন ও রয়টার্স।

এই বিভাগের আরো সংবাদ