ArthoSuchak
শনিবার, ২৮শে মার্চ, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘অগ্নিনির্বাপন যন্ত্রটি ছিল অকার্যকর, জরুরি পথও ছিল বন্ধ’  

বনানীর এফআর টাওয়ারের অগ্নিনির্বাপন যন্ত্রটি ছিল অকার্যকর, পাশাপাশি ভবনটিতে যে একটি ইমারজেন্সি এক্সিট বা জরুরি বহির্গমন পথ আছে সেটিও ছিল বন্ধ। এমনটাই জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত দলের আহ্বায়ক তরুণ শিকদার।

শনিবার (৩০ মার্চ) সকালে বনানীর এফ আর টাওয়ার পরিদর্শনে আসে অগ্নিকাণ্ডের জন্য গঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তদন্ত দল। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এবং ফায়ার সার্ভিস থেকে গঠিত তদন্ত দলকে সঙ্গে নিয়ে ভবনে প্রবেশ করেন তারা।

ভবনে প্রাথমিক পরিদর্শন এবং তদন্ত করে বেরিয়ে এসে তরুণ শিকদার সাংবাদিকদের বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে দেখেছি। পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করতে আরও সময় লাগবে। তবে এখন পর্যন্ত আমরা যেটুকু দেখেছি তার সারমর্ম হচ্ছে, ভবনে থাকা অগ্নিনির্বাপন যন্ত্র অকার্যকর ছিল। আর একটি ইমারজেন্সি এক্সিট আমরা দেখেছি। তবে সেটি ছিল বন্ধ ।

তদন্ত সংশ্লিষ্টরা জানান, পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শেষে, সবাই মিলে একটি বৈঠকে বসবেন। বৈঠক থেকে একটি উপসংহারে আসা হবে।

এছাড়াও বুয়েট তদন্ত দলের প্রতিবেদন সাপেক্ষে ভবন খুলে দেওয়ার বিষয়টি পুনর্ব্যক্ত করেন তদন্ত দল।

গত বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) দুপুর ১২টা ৫৫ মিনিটের দিকে বনানীর এফ আর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ২৩তলা সুউচ্চ ভবনটিতে অগ্নিকাণ্ডে শেষ খবর পর্যন্ত ২৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে।

অর্থসূচক/এমএস

এই বিভাগের আরো সংবাদ