ইন্দোনেশিয়ায় তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ বাংলাদেশি উদ্ধার
সোমবার, ২৭শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ইন্দোনেশিয়ায় তালাবদ্ধ দোকান থেকে ১৯৩ বাংলাদেশি উদ্ধার

ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপের মেইডেনে মানব পাচারকারীচক্রের হাত থেকে ১৯৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার করেছে সেদেশের পুলিশ। স্থানীয়দের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এক দোকান ভবনে গিয়ে তাদের বন্দি অবস্থায় পাওয়া যায়।

মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়ার প্রলোভনে তাদের সেখানে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখা হয় বলে অভিবাসন কর্মকর্তার বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

কাজের জন্য মালয়েশিয়ায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে পর্যটন ভিসায় বালি ও ইওগেকার্তা শহর হয়ে তারা ইন্দোনেশিয়ায় ঢুকেছেন।

ইন্দোনেশিয়ার উত্তর সুমাত্রার অভিবাসন প্রধান ফেরি মেনাং সিহিত বলেন, এসব বাংলাদেশি মানবপাচারের শিকার হয়েছেন। মালয়েশিয়ায় নিয়ে গিয়ে ভালো কাজের সুযোগ দেয়ার লোভের ফাঁদে ফেলে তাদের এখানে নিয়ে আসা হয়েছে। সুমাত্রা দ্বীপের মেদানে তারা তালাবদ্ধ অবস্থায় ছিলেন।

বুধবার রাতে যখন তাদের উদ্ধার করা হয়, তখন সবাই সুস্থ ছিলেন। এরপর তাদের অভিবাসী আটক কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এখন তাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো প্রক্রিয়া চলছে।

রয়টার্স এখনও স্বতন্ত্রভাবে আটককৃতদের সঙ্গে যোগাযোগে সমর্থ হয়নি। পুলিশের সঙ্গে এখনও কথা বলতে সক্ষম হয়নি তারা। তবে আটক হওয়া ৩৯ বছর বয়সী মাহবুবকে উদ্ধৃত করে ইন্দোনেশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ট্রিবান মেইডান জানিয়েছে, কাউকে কাউকে ৩ মাস ধরে বন্দি রাখা হয়েছিল। মাহবুব ওই সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের সবাইকে জাহাজে তোলা হয়েছিল। ধরেই নিয়েছিলাম আমাদের মালয়েশিয়ায় নিয়ে যাওয়া হবে। বাংলাদেশ থেকে বালি পৌঁছানোর পর বাসে করে চারদিনে এখানে এসে পৌঁছেছি।’

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, যে দোকানে তাদের আটকে রাখা হয়েছিল, তার আশপাশের বাসিন্দাদের কাছে তথ্য পেয়েই ওই বাংলাদেশিদের উদ্ধারে সমর্থ হয় কর্তৃপক্ষ। ওই ভবনে সন্দেহজনক চিৎকার-চেঁচামেচি শুনে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়েছিল।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ