হিলি সীমান্তে ৯ মাসে ৩৪ কোটি টাকার ভারতীয় পণ্য উদ্ধার

হিলি স্থল বন্দর
হিলি স্থল বন্দর

hiliহিলি, জয়পুরহাট, পাঁচবিবি, ধামুইরহাটসহ বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় চোরাচালান বিরোধী অভিযান চালিয়ে গত নয় মাসে ভারতীয় মাদকদ্রব্যসহ বিভিন্ন অবৈধ পণ্য উদ্ধার করা হয়েছে। এসব পণ্যের আর্থিক মূল্য প্রায় ৩৪ কোটি টাকা। জয়পুরহাট ৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।

চলতি বছরের জানুয়ারী থেকে নভেম্বর মাসে এই ব্যাটালিয়নের দায়িত্বে থাকা ৭২ কিলোমিটার সীমান্তে ১৬টি কোম্পানী সদর ও বিওপি ক্যাম্পের বিজিবি’র সদস্যরা সীমান্তে চোরাচালান বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে। অন্য যেকোনও সময়ের চেয়ে বিজিবি’র সদস্যরা এবার চোরাচালান প্রতিরোধে এই সাফল্য দেখিয়েছে বলে জানায় সংশ্লিষ্টরা। বর্তমান ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল খসরু সাব্বির আলী নেতৃত্বে এবং তাঁর দিক নির্দেশনায় বিজিবি’র সদস্যরা এই অভিযান চালায়।

আটককৃত অবৈধ মালামালের মধ্যে রয়েছে ফেন্সিডিল, লুজ ফেন্সিডিল, মদ, লুজ মদ, গাঁজা, বিয়ার, বিয়ার ক্যান, ইনজেকশন লুপিজেসিক, ট্যাবলেট ইয়াবা, ভায়াগ্রা, সেনেগ্রা, টার্গেট, হটেগ্রা, অনেগ্রা, চ্যাংড়া, হেরোইন, লেডিস চাঁদর, কার্ডিগান, বউটুপি, কানপট্টি, সোয়েটার, শাড়ী, থ্রীপিচ, মোটর সাইকেল, বাইসাইকেল, জিরা, ষ্টিল, গরু, ছাগল, গাড়ীর যন্ত্রাংশ, ইমিটেশন সামগ্রী, বিভিন্ন ধরণের অস্ত্র, গুলি, ম্যাগজিন, বিভিন্ন প্রকার ফল, শার্টপিচ, ঔষধ, কোদাল, লাঙ্গলের ফাল, কসমেটিক সামগ্রী ইত্যাদি। এসব মালামালের মূল্য আনুমানিক ৩৪ কোটি ৫৯ লক্ষ ৯৩ হাজার ১৩৫ টাকা।

অপরদিকে ভারতে পাচারের সময় আটককৃত পণ্যের মধ্যে রয়েছে পাট, তুলা, ইলিশ মাছ, রেশম সুতা, চামড়া, কেরোসিন তৈল, সার। এগুলোর মূল্য ১৬ লক্ষ ৮৭ হাজার ৯৫০ টাকা। সব মিলিয়ে মোট ৩৪ কোটি ৭৬ লক্ষ ৮১ হাজার ৮৫ টাকার মালামাল আটক করা হয়।

এসব ঘটনায় মোট দুই হাজার ২৪৬টি মামলা হয়। একই সঙ্গে এসব ভারতীয় অবৈধ পণ্য পাচারের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ২২১ জন চোরাকারবারীকে আটক করা হয়েছে, পতালক রয়েছে ৭৮ জন আসামী।

ব্যাটালিয়ন সদর কার্যালয় সুত্রে জানাগেছে, হিলি, পাঁচবিবি, জয়পুরহাট ও ধামুইরহাট সীমান্ত এলাকা থেকে আটক হওয়া এসব অবৈধ মালামালের মধ্যে রয়েছে, ৭১ হাজার ৭৫৭ বোতল ফেন্সিডিল, এক হাজার ৮৩ বোতল মদ, ৬২৫ বোতল বিয়ার, ছয় হাজার ৯৫০ কোজি গাঁজা, ২ হাজার ৭৫১ কেজি হেরোইন, এক লক্ষ ৭১ হাজার ৪৬ টি বিভিন্ন প্রকার যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট, এক কোটি ৮০ লক্ষ ৬৪ হাজার ৭৩০টি বিভিন্ন প্রকার ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।

বিজিবি হিলি চেকপোস্ট ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ছবিজুর রহমান জানান, বিজিবির তৎপরতায় হিলি সীমান্তে চোরাচালানীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। বিজিবি’র সদস্যরা চোরাচালান বন্ধে রাত-দিন কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জয়পুরহাট ৩ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল  খসরু সাব্বির আলী বলেন, অস্ত্র, মাদক ও ভারতীয় বিভিন্ন পণ্যের চোরাকারবারীদের একেবারে নির্মূল না করা পর্যন্ত সীমান্তে এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।