সাগরে পারমাণবিক পোসেইডন ড্রোন নামাচ্ছে রাশিয়া
বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

সাগরে পারমাণবিক পোসেইডন ড্রোন নামাচ্ছে রাশিয়া

অস্ত্রের দাপট নব উদ্যমে এগিয়ে নিচ্ছে বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি রাশিয়া। দেশটি তাদের অস্ত্রাগারে সবচেয়ে শক্তিশালী অত্যাধুনিক প্রযুক্তির হাইপারসনিক কিনঝাল ক্ষেপণাস্ত্র যোগ করেই থেমে থাকেনি, এবার পোসেইডন নামের এক পারমাণবিক অস্ত্রবাহী ড্রোন নামাচ্ছে সাগরে। একটি দুটি নয়, বরং গুনে গুনে ৩২টি ড্রোন নামাচ্ছে পুতিনের দেশ।

‘তোপোলেভ টিইউ-২২২এম৩ বোমা’ অত্যধিক দ্রুতগতির সঙ্গে বহনে সক্ষম কিনঝালে আকাশপথে পারমাণবিক হামলায় অন্যদের থেকে অনেক গুণ শক্ত অবস্থানে যাওয়াসহ স্থলপথেও অনেক এগিয়ে গেছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তবে জলপথেও পিছিয়ে ছিলেন না তিনি। তারপরও ভয়াবহ যুদ্ধের জন্য নৌবাহিনীকে দিয়ে নামাতে চাইছেন ৩২টি পারমাণবিক পোসেইডন ড্রোন। আর বড় ধরনের এই অস্ত্রের মহড়াটি শুরু হলে প্রধান পরাশক্তি যুক্তরাষ্ট্রসহ গোটা বিশ্বের মনোযোগের কেন্দ্র হয়ে উঠবে। এই মহড়া যুক্তরাষ্ট্র ও তার পশ্চিমা মিত্রদের জন্য হয়ে উঠতে পারে বড় মাথাব্যথার কারণ।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, এবার সাগরে প্রতিরক্ষাব্যুহ গড়ে তুলবে রুশ নৌবাহিনী। এজন্য ৩০টিরও বেশি উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন পারমাণবিক পোসেইডন ড্রোন নিয়ে ঘাঁটি বাঁধতে যাচ্ছে তারা।

সংবাদমাধ্যম বলছে, পোসেইডন বহনকারী দুইটি সাবমেরিন দেশটির নৌবাহিনীর উত্তরাঞ্চলীয় যুদ্ধজাহাজের বহর বা নর্দার্ন ফ্লিট থেকে পুরোদমে কাজ চালাতে সক্ষম হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এছাড়া আরও দুইটি সাবমেরিন প্রশান্ত মহাসাগরীয় ফ্লিট বা প্যাসিফিক ফ্লিটের সঙ্গে যোগ দেবে।

সূত্র বলছে, বড় ধরনের প্রতিটি সাবমেরিনে সর্বোচ্চ আটটি করে পোসেইডন থাকবে। এ হিসেবে চারটি সাবমেরিনে ভাগ হবে ৩২টি পোসেইডন। আর যুদ্ধের জন্য যেদিকে যাওয়া হবে, সেদিকেই অন্তত একটি সাবমেরিন বা আটটি পোসেইডনের হামলা হবে। প্রয়োজনে ১৬টি পোসেইডন ড্রোন দুই সাবমেরিনে একসঙ্গে কাজ করতে পারবে।

অর্থসূচক/কেএসআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ