ফ্রান্সের যেসব জায়গায় যাওয়া উচিত
রবিবার, ১৭ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

ফ্রান্সের যেসব জায়গায় যাওয়া উচিত

ফ্রান্স ভ্রমণে প্রতি বছর পর্যটক যান প্রায় ৮ কোটি ৩০ লাখ। ফ্রান্সের প্যারিসে পর্যটকদের জন্য রয়েছে দেখার অনেক কিছু৷ সেইন নদীর তীরে ঘোরাঘুরি, সুগন্ধি ল্যাভেন্ডার ক্ষেত, আল্পস পর্বতমালা বা আইফেল টাওয়ার থেকে ফরাসি রাজধানীর সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন অতি সহজে। আর আপনার ঘোরাঘুরিন সুবিধার্থে দেশটির আকর্ষণীয় কয়েকটি গন্তব্যস্থল তুলে ধরা হলো।

প্যারিস।

প্যারিস

সেইন নদীর তীরে ঘোরাঘুরি, লুভরের মোনালিসার প্রেমে পড়া, আর্ক ডি ত্রিয়োম্ফের দিকে তাকিয়ে থাকা অথবা আইফেল টাওয়ার থেকে ফরাসি রাজধানীর সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন। প্যারিসে পর্যটকদের জন্য রয়েছে দেখার অনেক কিছুই৷

প্রোভোঁস

প্রোভোঁস

সুগন্ধি ল্যাভেন্ডার ক্ষেত, মধ্যযুগের পাহাড়ি গ্রাম, দারুণ আলো৷ প্রোভোঁসে গ্রীষ্মকালে অসাধারণ এসব দৃশ্য দেখতে পাবেন৷ পিকাসো, ফান গখের মতো বিখ্যাত সব চিত্রশিল্পী ছবি আঁকার জন্য এই জায়গাটিকে বেছে নিয়েছিলেন৷ প্রতি বছর এখানে ঘুরতে আসেন ৩ কোটি পর্যটক৷

কুতে ডি’জুওর

কুতে ডি’জুওর

বিলাসিতা আর গ্ল্যামারের জন্য এই শহরটি বিখ্যাত৷ ঊনবিংশ শতাব্দীতে ইউরোপের অভিজাতরাই কেবল এখানে ছুটি কাটাতে আসতেন৷ এরপর নামকরা শিল্পীরা আসতে লাগলেন৷

আল্পস

আল্পস

ফ্রান্সের দক্ষিণ-পূর্ব সীমান্ত ঘেঁষে দাঁড়িয়ে আছে আল্পস পর্বতমালা। এর চূঁড়া পর্বতারোহীদের কাছে অন্যরকম আকর্ষণ৷

পিরেনে

পিরেনে

ফ্রান্সের দক্ষিণ-পশ্চিমে স্পেন সীমান্তের কাছে এর অবস্থান৷ যাঁরা এখানে সাইকেল চালিয়ে যেতে পারেন, শারীরিক সুস্থতার জন্য তাঁদের বাহবা দিতেই হয়৷

লোয়ার ভ্যালি

লোয়ার ভ্যালি

ফ্রান্সের দীর্ঘতম নদী লোয়ার রয়েছে এখানে৷ এখানকার ছোট্ট এলাকায় অনেক দুর্গের দেখা পাবেন আপনি৷ ২০০০ সাল থেকে লোয়ার ভ্যালি ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ৷

ব্রেতানে

ব্রেতানে

পশ্চিম ফ্রান্সের বোতঁ উপকূলের বন্য সৌন্দর্য আপনাকে পাগল করার জন্য যথেষ্ট৷ এখানকার পরিবর্তনশীল আবহাওয়া ল্যান্ডস্কেপের সৌন্দর্যকে আরও বাড়িয়ে দেয়৷

নরম্যান্ডি

নরম্যান্ডি

এখানে গেলে ইউরোপের সবচেয়ে উত্তাল ঢেউয়ের সাথে পরিচয় হবে আপনার৷ এক একটা ঢেউয়ের উচ্চতা ৪৬ ফুট পর্যন্ত হয়ে থাকে৷ বছরের কিছুটা সময় পুরো দ্বীপটি পানিতে ঢাকা থাকে৷ ১৯৭৯ সাল থেকে এটি ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত৷

কুতে দেয়ারজোঁ

কুতে দেয়ারজোঁ

কুতে দেয়ারজোঁ এর অর্থ রূপালি উপকূল৷ সমুদ্র সৈকতটি ১০০ কিলোমিটার দীর্ঘ, যেখানে রয়েছে ধবধবে সাদা বালি, যেটা সূর্যের আলোতে রূপালি মনে হয়৷ জায়গাটি যে কারো ভ্রমণের জন্য স্বপ্নের গন্তব্যস্থল হতে পারে৷

বর্দো আর আলসাস

যাঁরা মদ্যপানে আগ্রহী, তাঁদের জন্য ফ্রান্স আনন্দের জায়গা৷ কিছু ফরাসি ওয়াইন বিশ্বে মাইলফলক রচনা করেছে৷ এই দেশে ১৪টি ওয়াইন তৈরির এলাকা রয়েছে, যাদের প্রত্যেকের রয়েছে নিজস্ব বৈশিষ্ট্য৷ তবে সবচেয়ে ভালো ওয়াইন আসে বর্দো এলাকা থেকে৷

অর্থসূচক/এসএফ

এই বিভাগের আরো সংবাদ