রানার অটোমোবাইলসের আইপিও অনুমোদন
রবিবার, ৩১শে মে, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

রানার অটোমোবাইলসের আইপিও অনুমোদন

দেশের প্রথম মোটরসাইকেল প্রস্তুতকারী কোম্পানি রানার অটোমোবাইলস লিমিটেডের প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। আজ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত বিএসইসির কমিশন বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

 

Runner-Factory-gate

বুক বিল্ডিং পদ্ধতির আইপিওতে বাজারে আসছে রানার অটোমোবাইলস। আইপিওতে কোম্পানিটি ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ১৫টি শেয়ার ইস্যু করবে। শেয়ার বিক্রির অফার মূল্য ৬৭ টাকা। শিগগিরই কোম্পানিটি সংবাদপত্রে প্রসপেক্টাস প্রকাশ করে আইপিওর আবেদন ও টাকা জমা নেওয়ার সময়সূচি ঘোষণা করবে।

জানা গেছে, রানার অটোমোবাইলস মূলধন উত্তোলনের জন্য ১ কোটি ৩৯ লাখ ৩০ হাজার ৩৪৮ টি সাধারন শেয়ার ইস্যু করবে। এর মধ্যে ৮৩ লাখ ৩৩ হাজার ৩৩৩ টি শেয়ার ৭৫ টাকা দরে উপযুক্ত বিনিয়োগকারীদের (প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী) নিকট ইস্যু করা হবে। উল্লেখ্য, এর আগে কোম্পানির শেয়ারের জন্য উপযুক্ত বিনিয়োগকারীরা নিলামে অংশগ্রহন করে দর প্রস্তাব করে। যার কাট-অফ প্রাইস ৭৫ টাকা নির্ধারণ করেছে। অবশিষ্ট ৫৫ লাখ ৯৭ হাজার ১৫ টি শেয়ার ৬৭ টাকা দরে সাধারন বিনিয়োগকারীদের নিকট ইস্যু করা হবে।

এর আগে গত ১০ জুলাই রানার অটোমোবাইলকে প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি বা বিডিংয়ের অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

আইপিওর মাধ্যমে সংগ্রহ করা টাকায় কোম্পানিটি গবেষণা ও উন্নয়ন, যন্ত্রপাতি ক্রয়, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ ও প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন, ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ৩১ পয়সা।

আলোচ্য বছরে কোম্পানির সম্পদ পুনর্মূল্যায়ন পরবর্তী শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ছিল ৫৫ টাকা ৭০ পয়সা। আর পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া এনএভি ৪১ টাকা ৯৪ পয়সা।

উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড। আর রেজিস্টার টু দি ইস্যু হিসেবে কাজ করছে লংকাবাংলা ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ