ArthoSuchak
মঙ্গলবার, ৩১শে মার্চ, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘কৃষির উৎপাদন বাড়াতে হলে গবেষণা কেন্দ্র বৃদ্ধি করতে হবে’

প্রতি বছর জলবায়ুর পরির্তনের কারণে আমাদের দেশে কৃষির উৎপাদনে প্রভাব পড়ছে। যার ফলে ব্যাপক হারে ক্ষতগ্রস্থ হচ্ছেন কৃষকরা । তাই এই বির্পযয় থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য আমাদের দেশে কৃষি গবেষণা কেন্দ্র বৃদ্ধি করতে হবে বলে জানিয়েছেন বন ও পরিবেশ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

আজ রোববার রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁ হোটেলে এফবিসিসিআই আয়োজিত পরিবেশ বির্পযয় নিয়ে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ছবি : জয়নাল আবেদিন।

তিনি বলেন, বর্তমানে  ৯৩ শতাংশ পানি ধরে রাখছে ভারত, চীন ও নেপাল। আর মাত্র ৭ শতাংশ পানি পাচ্ছে বাংলাদেশ। আর এই দেশ গুলোতে যখন অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত হয় তখন তারা তাদের পানি আমাদের দেশে  নিষ্কাশন করে। যার ফলে প্রতি বছর এই দেশে অমৌসুমী বন্যা হচ্ছে ।

বিশ্বের বড় বড় দেশ গুলো যারা অর্থনীতিতে সমৃদ্ধ তারা এই পরিবেশ বির্পযয়ের  জন্য কোন প্রদক্ষেপ নিচ্ছে না। আর এর  জন্য আমাদের মত ছোট ছোট দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। তাই আমাদের সবাইকে প্রতিশ্রতিবদ্ধ হয়ে পরিবেশ বির্পযয় রোধে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম (মহিউদ্দিন) বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ২১ শতকের অন্যতম বড় এক চ্যালেঞ্জ। ঝুঁকিপ্রবণ অঞ্চল হিসেবে দক্ষিণ এশিয়ায় দারিদ্র এবং খাদ্য নিরপত্তার জন্যও এটি একটি বড় চ্যালেঞ্জ। বিষয়টিকে  গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশই প্রথম দেশ হিসেবে ‘জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড’ গঠন করেছে।

দেশের ব্যবসায়ী সম্প্রদায় নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবস্থা প্রবর্তন, পরিবেশ-বান্ধব ও সবুজ কারখানা গড়ে তোলা এবং পরিবেশ সুরক্ষা ও বর্জ ব্যবস্থাপনার দিকটিতে খেয়াল রেখে দেশের ‘অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলো প্রতিস্থাপন করার ক্ষেত্রে তাদের সহায়তা অব্যাহত রেখেছে। বিশ্বের ১০টি শীর্ষ ‘সবুজ কারখানার’ ৭টিই বাংলাদেশে অবিস্থিত বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এসসিসিআই সভাপতি মি. রুয়ান এডিরিসিংহে, এসসিসিআই সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম এবং এসসিসিআই সিনিয়র সহ-সভাপতি ইফতেখার আলি মালিকও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন

অর্থসূচক/জেডএ/জেডআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ