প্রবৃদ্ধিতে স্বল্পোন্নত দেশগুলোতে শীর্ষ পাঁচে বাংলাদেশ
সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

প্রবৃদ্ধিতে স্বল্পোন্নত দেশগুলোতে শীর্ষ পাঁচে বাংলাদেশ

জাতিসংঘের এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে প্রবৃদ্ধিতে শীর্ষ পাঁচে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। ২০১৭ সালে ৭ শতাংশ বা তার বেশি প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে সক্ষম এমন ৪৫টির দেশের মধ্যে বাংলাদেশ চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।

বাকি ৪টি দেশ হলো-ইথিওপিয়া ৮.৫, নেপাল ৭.৫, মিয়ানমার ৭.২, বাংলাদেশ ৭.১ এবং জিবুতি ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে। জাতিসংঘের অঙ্গসংগঠন আঙ্কটাডের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানা গেছে।

বিশ্লেষণে জানা যায়, এলডিসি’র তালিকায় বেশিদিন অবস্থান করলে প্রাথমিক পণ্য রপ্তানির নির্ভরতা বেড়ে যায়।

২০১৬ সালে সংস্থাটি এলডিসিভুক্ত দেশকে আলাদাভাবে দেওয়া মোট অনুদানের পরিমাণ ৩৭.৯ বিলিয়ন ডলার থেকে ২.৬ শতাংশ কমিয়ে আনা হয়েছে। যা ২০১৭ সালে ৩৬.৯ বিলিয়ন ডলারে এসে দাঁড়ায়। সদস্যভুক্ত দেশগুলোর অর্থনীতি ক্রমবর্ধমান হারে এগিয়ে যাওয়ার কারণে অনুদান কমিয়ে আনা হয়েছে।

আঙ্কটাডের তথ্যমতে, রেমিটেন্স আয়ে বাংলাদেশ শীর্ষে অবস্থান করছে। ২০১৬ সালে  বাংলাদেশ ১৩.৬ বিলিয়ন ডলার, নেপাল ৬.৬ বিলিয়ন, ইয়েমেন ৩.৪ বিলিয়ন, হাইতি ২.৪ বিলিয়ন, সেনেগাল ২ বিলিয়ন এবং উগান্ডা ১ বিলিয়ন ডলার আয় করেছে।

অর্থনৈতিক উন্নয়নে অনগ্রসর বিশেষ করে আফ্রিকান সাব সাহারা ইউনিয়নে বৈষম্য  ঝুঁকি বেড়েই চলছে বলে সংস্থটির নতুন বিশ্লেষণে উঠে আসে। এতে সদস্যভুক্ত ৪৭ দেশের অর্থনৈতিক অসাম্য দূর করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বিশেষ দৃষ্টি রাখার সুপারিশ করা হয়েছেে। এ বিষয়ে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে ২০৩০ সালের মধ্যে জাতিসংঘ ঘোষিত এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে এসব দেশ পিছিয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে।

‘কাউকেই পেছনে রাখা যাবে না’ এই অঙ্গীকারের আওতায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এলডিসিভিুক্ত দেশগুলোকে সহযোগিতা বাড়ানোর জোর তাগিদ দেন আঙ্কটাডের আফ্রিকা অঞ্চলের প্রধান পল আকিওমি।

তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক পরিস্থিতি সুবিধাজনক না থাকায় উন্নয়ন অংশীদাররা এলডিসিভুক্ত দেশগুলোকে সহযোগিতার ক্ষেত্রে  নানা সীমাবদ্ধতার সম্মুখীন হয়। যার কারণে এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে  সংশ্লিষ্ট  দেশগুলো পিছিয়ে পড়বে।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় আঙ্কটাডের সদস্যভুক্ত দেশগুলোর গভর্নিং বডির সদস্যদের নিয়ে এক বৈঠকে এ বিশ্লেষণ তুলে ধরা হয়েছে। সংস্থাটি বলছে, এলডিসিভুক্ত দেশগুলোর অর্থনৈতিক পুর্নগঠন বেগবান করা ছাড়া এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব নয়।

অর্থসূচক/জেডআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ