অজ্ঞাত এসএমএস সনাক্তকরণে বিটিআরসির ৫ নির্দেশনা

BTRC

BTRCবুধবার বিটিআরসি’র কার্যালয়ে মোবাইল অপারেটর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করে অজ্ঞাত এসএমএস সনাক্তকরণে ৫টি নির্দেশনা প্রদান করেছেন নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

জানা যায়, প্রেরকের কাছ থেকে বার্তা সংবলিত এসএমএস সনাক্তে মোবাইল ফোন অপারেটরদের ৫টি নির্দেশনা দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। বিটিআরসি চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি বোস জানান, এসএমএস প্রেরণকারীদের সনাক্তে অপারেটেরদের ৫টি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বিটিআরসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, গত কয়েক দিন থেকে যেসব এসএমএস গ্রাহকদের অজ্ঞাত স্থান থেকে পাঠানো হচ্ছে তা দেশের বাইরে থেকেই আসছে, কেননা দেশের মধ্যে থেকে শর্ট কোডের মাধ্যমের প্রেরণ করা হলে খুব সহজেই সনাক্ত করা যেত।

কোন স্থান থেকে এসএমএস আসছে এবং প্রেরণকারীদের সনাক্তেই এই ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান বিটিআরসি প্রধান। অপারেটররা এ বিষয়ে খুব শিগগিরই কাজ শুরু করবে বলে জানান সুনীল কান্তি বোস। অবশ্য নির্দেশনার বিষয়ে কিছু জানাননি বিটিআরসি চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, ৫টি নির্দেশার বিষয়গুলো নিরাপত্তার জন্য এখন বলা যাচ্ছে না। দেশের বাইরের থেকে আসা এসব এসএমএস সনাক্তে অপারেটরদের কিছু নতুন প্রযুক্তি ইনস্টল করতে হচ্ছে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

গত সোম ও মঙ্গলবার যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কাদের মোল্লার ফাঁসি নিয়ে এসএমএস পাঠায় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা। সেখানে লেখা হয় এ ফাঁসি কার্যকর হলে দেশ গৃহযুদ্ধের দিকে যাবে।এসব এসএমএসের মাধ্যমে বড় ধরনের নাশকতা বা সংঘাত সৃষ্টি হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করছেন অনেক গ্রাহক।

উল্লেখ্য, গত ২৩ জুন প্রধান দুই দলের নেত্রীকে ‘না’ বলার আহ্বান জানিয়ে এক অজ্ঞাত নম্বর থেকে গ্রাহকদের এসএমএস পাঠানো হয়েছিল।