ArthoSuchak
বুধবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

কালো বলেই মার্কিন বিমানে ‘কম্বল চুরি’র অপবাদ!

ঘটনাটি গেল সপ্তাহের। আমেরিকান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ডালাস থেকে দক্ষিণ ড্যাকোটার উদ্দেশ্যে উড্ডয়নের আগে প্রথম শ্রেনী থেকে হাতে করে দুইটি কম্বল নিয়ে ফিরছিলেন দুই বাস্কেটবল খেলোয়াড়। এমন সময় ফ্লাইট অ্যাটেন্ডেন্ট হঠাৎ করেই থামান তাদের।

তারপর কোনো ভালো-মন্দ কোনো কথা ছাড়াই তিনি প্রশ্ন ছোড়েন, কম্বলগুলো কি তোমরা চুরি করে এনেছো?

বেচারা অ্যাটেন্ডেন্ট হয়তো কখনও রবি ঠাকুরের ‘কৃষ্ণকলি আমি তারেই বলি…’ বা তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের কবি উপন্যাসের সেই বিখ্যাত উক্তি ‘কালো যদি মন্দ জানো, কেশ পাকিলে কান্দো কেন?…’ এর মতো শব্দবন্ধ শোনেননি। পড়েননি হ্যারিয়েট বিচার স্টোর আংকেল টমস কেবিন কিংবা অ্যালেক্স হ্যালির রুটস উপন্যাট দুইটি। তাই হয়তো কালো মানুষের জন্য তার মনের মধ্যে মমতার বদলে প্রচ্ছন্ন ঘৃণাই জমা ছিল।

মারকুইস টিগ ও ট্রাসন বুরেল

কিন্তু সেটা মানতে পারেননি বিমানের ওই দুই কৃষ্ণাঙ্গ আরোহী। অ্যাটেন্ডেন্টের এহেন কর্মের পরেই মারকুইস টিগ ও ট্রাসন বুরেল নামের ওই যাত্রীরা রাগে, ক্ষোভে আর অপমানে তাৎক্ষণিকভাবে নেমে যান সেই বিমান থেকে।

তবে ঘটনাটি সেখানেই থেমে থাকেনি। মারকুইস ও ট্রাসন জাতীয় দলের খেলোয়াড় না হলেও তারা যে ক্লাবে খেলেন সেই ক্লাব কর্তৃপক্ষ এই ঘটনার তীব্র সমালোচনা করেছে।

মারফিস হ্যাচেল নামের ওই ক্লাবের সহকারি কোচ ড্যারেন লেজারি এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, এটা ২০১৭ সাল এবং আমেরিকান এয়ারলাইন্সের এক অ্যাটেন্ডেন্ট দুইজন কৃষ্ণাঙ্গ খেলোয়াড়কে প্রথম শ্রেনীতে দেখলেন দুইটি কম্বল হাতে। তখন কোনো কিছু না ভেবেই তিনি বললেন, এগুলো চুরি করে এনেছো?

ড্যারেন লেজারি লিখেছেন, আমরা কী শিখছি? কোনো বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রথম ফ্যাক্ট হিসেবে কী বিবেচনা করবে?

এরপর তিনি হ্যাসট্যাগে লিখেছেন, কালো আমেরিকান হওয়ার জন্যই?

এদিকে এই ঘটনার পরপরই আমেরিকান এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ ক্ষমা চেয়েছে। পরের আরেকটি ফ্লাইটের প্রথম শ্রেনীতেই তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিয়েছে।

আমেরিকান এয়ারলাইন্সে মুখপাত্র জসুয়া ফ্রীড বলেছেন, ঘটনাটির জন্য আমরা আন্তরিক দুঃখ প্রকাশ করছি। আমরা সকলকেই সমান মূল্যায়ণ করতে চাই।

তিনি, জানান এই ঘটনাটি যে ঘটিয়েছে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ