ArthoSuchak
বুধবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

টাক মাথায় ‘মেহেদির মুকুট’

বিশ্বজুড়ে ১০০’র বেশি নারী টাক সমস্যায় আক্রান্ত। তবে অনেকে এই টাক সমস্যা ঠেকানোর সৃজনশীল উপায় বের করেছেন।

তেমনই একজন কেনিসা বেল। যিনি তার টাক ঢেকে দিয়েছেন মেহেদির নকশায়। টাক সমস্যা লুকানোর বদলে তিনি সেখানেই এঁকেছেন মেহেদির আলপনা।

মুকুটের মতো নকশা করে তিনি উদযাপন করছেন তার টাক। একেই অনন্য মনে করেন।

১০ বছর আগে কাতারের স্কুল শিক্ষিকা কেনিসা অ্যালোপসিয়ায় আক্রান্ত হন। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, চুল থাকা আর না থাকা কোনো ব্যাপার না। প্রথমে খুব কষ্ট হতো। চুল গজালেও আবার ঝড়ে পড়ে যেত।

তিনি বলেন, এখন টাক মাথায় মেহেদির নকশা করে মনে করে নিজেকে অনন্য মনে হয়।

আমেরিকান হেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের মতে, অ্যালোপেসিয়ায় আক্রান্ত ১০ জনের মধ্যে ৪জনই নারী। প্রায় ৭০ লাখ মার্কিন নারী অ্যালোপেসিয়ায় আক্রান্ত হন।

সমাজের চাপে অনেক নারীই নিরবে এই রোগ ভোগ করেন। পুরুষের জন্য মাথায় টাক বয়ে বেড়ানো যতটা সোজা, নারীর জন্য তা অনেক কঠিন হয়ে ওঠে।

কেনিসার মতো অনেককেই টাক মাথায় মেহেদির নকশা করে দিয়েছেন মেহেদি শিল্পী নাজমা মাজহার। অ্যালোপেসিয়াতে আক্রান্ত নারীদের উৎসাহ ও আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য তিনি তাদের মাথায় মেহেদি দিয়ে মুকুটের নকশা করে দেন।

তিনি বলেন, যখন আমি মেহেদি লাগিয়ে দিই, তখন তারা আনন্দে লাফিয়ে ওঠেন। তাদের বন্ধুদের সঙ্গে গেয়ে ওঠেন। এ দৃশ্য দেখে আমার কান্না চলে আসে।

কেনিসার লক্ষ্য তিনি তার মেহেদির মুকুট নিয়ে সগর্বে তার কাজে যোগ দেবেন। মেহেদি মুকুট নিয়ে উদযাপন করবেন তার টাক।

অর্থসূচক/এসবিটি

এই বিভাগের আরো সংবাদ