ArthoSuchak
বুধবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নরসুন্দরের অসুন্দর কাণ্ড!

সেলুনে গেলেন চুল কাটতে। আর নরসুন্দর যদি চুল ছাঁটতে গিয়ে কান কেটে দেয়, কেমন লাগবে আপনার? ভালো না নিশ্চয়ই?

এমনটাই ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উইশকনসিন রাজ্যের ম্যাডিসন এলাকায়। এক গ্রাহক অভিযোগ করেছেন, চুল ছাঁটতে গিয়ে তার নরসুন্দর মাথার মাঝ বরাবর চেঁছে দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, কাঁচি দিয়ে কান কেটে রীতিমত রক্তাক্তও করেছে। সূত্র হাফিংটন পোস্ট।

২২ বছর বয়সী ওই গ্রাহক গত ২২ ডিসেম্বর রুবি’স সেলন নামে ওই সেলুনে গেছিলেন। ফরমায়েশ ছিল কানের পাশের চুল ছাঁটার।আর উপরের দিকের এক ইঞ্চি চুল ছেঁটে দেওয়ার।

কিন্তু ৪৬ বছর বয়সী খালেদ এ সাবানি নামের ওই নরসুন্দর বা নাপিত কাঁচি পেয়ে যেন ভুলে গেলেন সবকিছু।

চুল চাঁছার পর গ্রাহকের ছবি।

ওই নাপিত সজোরে ওই গ্রাহকের মাথা চেপে ধরেন। এতে তিনি প্রায় হাঁসফাঁস করতে থাকেন। তাকে থামানোর জন্য ওই নাপিত তার কান মলে দেন। এরপর সাবানি তার গ্রাহকের কান কাঁচি দিয়ে কেটে দেন।

রক্তাক্ত গ্রাহককে ছাড়েনি ওই নাপিত। ওই গ্রাহক দাবি করেন, এরপর ক্ষুর দিয়ে তার চুলের মাঝ বরাবর পুরোটা ছেঁচে দেয়। গ্রাহককে তৎক্ষণাৎ টেকো বানিয়ে দেয় ওই নাপিত।

নতুন ‘অর্ধ টেকো’ ওই গ্রাহক দৌড়ে পালিয়ে যান ওই সেলুন থেকে। যখন গ্রাহক পালাচ্ছিলেন তখনও চিৎকার করে যাচ্ছিলেন ওই নাপিত। এমন অবস্থায় অন্য সেলুনে গিয়ে পুরোপুরি টেকো হয়ে নিজের চুলের অবস্থা ঠিক করেন। কিন্তু এরপর চুপ করে বসে থাকেননি তিনি।

পুলিশের কাছে মামলা করলে ক্ষুরসহ গ্রেপ্তার করা হয় সাবানিকে। চুল চাঁছার জন্য নয়। কান কেটে রক্তাক্ত করে দেওয়ার অভিযোগে।

এতকিছুর পরেও একে ‘নিছক’ ঘটনা বলেছেন ওই নরসুন্দর।

অর্থসূচক/এসবিটি

এই বিভাগের আরো সংবাদ