ArthoSuchak
বুধবার, ৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

লটারির বিজয়ী সনাক্ত করতে ডিএনএ পরীক্ষা!

থাইল্যান্ডে একটি লটারির পুরস্কার বিজয়ীর দাবিদার দুইজন। একজন শিক্ষক অন্যজন পুলিশের সাবেক এক সদস্য। বিপাকে পড়েছে লটারির আয়োজকরা। সঠিক বিজয়ীকে সনাক্ত করতে তাই ডিএনএ পরীক্ষার দ্বারস্থ হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

থাইল্যান্ডের কাঞ্চনাবুরি প্রদেশের বাসিন্দা ৫০ বছর বয়সী শিক্ষক প্রিচা ক্রাইক্রুয়ান অভিযোগ করেন,  তিনি লটারির ৫টি টিকিট কিনেছিলেন। কিন্তু পরে সেগুলো হারিয়ে ফেলেন। গত মাসে ওই লটারির ড্র হয়। এতে ৩ কোটি বাথ (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৮ কোটি ৩১ লাখ ২১ হাজার ৯০০ টাকা) জিতেছেন তিনি।

এই অভিযোগ পেয়ে কর্তৃপক্ষ যাচাই করতে গিয়ে দেখে, ওই একই প্রদেশের বাসিন্দা থাই পুলিশের সাবেক সদস্য ৬২ বছর বয়সী চারুন বিমন পুরো অর্থ তুলে নিয়েছেন। প্রাথমিক তদন্তে কোনো সিদ্ধান্তে আসতে না পেরে পুলিশ এখন ডিএনএ পরীক্ষার দ্বারস্থ হয়েছে।

তারা জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষের কাছে থাকা টিকিটের ছিন্ন অংশে আঙুলের ছাপটি যার, তিনিই ওই অর্থের প্রকৃত বিজয়ী।

কাঞ্চনাবুরিতে প্রাদেশিক পুলিশের ডেপুটি কমান্ডার কৃষানা সাপদেত বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কারও বিরুদ্ধেই অভিযোগ আনা হয়নি। আমরা ডিএনএ পরীক্ষার ফলাফলের অপেক্ষায় রয়েছি। ডিএনএ পরীক্ষার ফলাফল আগামী মাসে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন ফরেনসিক বিভাগের এক কর্মকর্তা।

উল্লেখ, প্রতি মাসে ২ বার করে থাইল্যান্ডে লটারির ড্র হয়। সরকারি সংস্থার তত্ত্বাবধানে এসব লটারি ছাড়া হয়। দেশটিতে প্রায় সব ধরনের জুয়া নিষিদ্ধ হওয়ায় লটারি ব্যাপক জনপ্রিয়।

অর্থসূচক/এইচ আর

এই বিভাগের আরো সংবাদ