ArthoSuchak
শুক্রবার, ৩রা এপ্রিল, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

দেওয়ালের ভেতর ৭৫ বছরের পুরোনো প্রেমপত্র!

একসময় ভালোবাসার প্রকাশ মানে  চিঠি লেখা। একসময় ভালোবাসার মানুষটিকে চিঠি লিখেই জানানো হতো মনের খবর। কবুতরের পায়ে বেঁধে বা ডাকে মনের মানুষের কাছে চিঠি পৌঁছানো হতো। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াল্টারের লেখা চিঠি কখনো পৌঁছায়নি বেটি মিলারের কাছে। কিন্তু তা অক্ষত রয়েছে এক বাড়ির দেওয়ালে!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাশাচুসেটসে পাওয়া গেছে এমনই এক চিঠির সন্ধান।

১৯৪৪ সালে সেই প্রেমিক প্রবর চিঠি লিখেছিলেন তার ভালোবাসার মানুষের উদ্দেশ্যে। ভালোবাসার মানুষের কাছে চিঠিটি কোনো কারণে পৌঁছায় না। কিন্তু এত যত্নে লেখা চিঠি হারায়নি কালের গর্ভে।

ঘরের দেওয়াল থেকে উদ্ধার করা ১৯৪৪ সালের সেই চিঠি।

৭৫ বছর পর চিঠিটি পাওয়া গেছে একটি নতুন গড়ে ওঠা বাড়ির দেওয়ালে। আর সেখান থেকে চিঠিটি হাতে আসে মার্কিন মুলুকের ম্যাশাচুসেটস রাজ্যের পুলিশের কাছে।

সেই চিঠি কে পাঠিয়েছে তা খোঁজ করতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের আশ্রয় নিয়েছে ম্যাশাচুসেটস পুলিশ। গত শনিবার সেখানকার গ্রিনফিল্ড পুলিশ বিভাগ ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন।

পোস্টে তারা বলেন, ১৯৪৪ সালের ১৯ এপ্রিল তারিখ দেওয়া ওই চিঠির লেখক একজন পুরুষ। চিঠিতে তার নাম শুধু ‘ওয়াল্টার’ লেখা।

চিঠিটি লেখা হয়েছিল গ্রিণফিল্ডের মিস বেটি মিলারের নামে। ভালোবাসার প্রকাশ করতে চেষ্টার কোনো ত্রুটি নেই চিঠিটিতে। চিঠিতে লেখা, আমি অন্য কোনো মেয়ের চেয়ে সবসময় তোমার কথা বেশি ভেবেছি। আর এখনো করি। চিঠিতে অনেক কাকুতি মিনতি করা হয়েছে বেটি মিলার যেন ওয়াল্টারের অনুভূতির ব্যাপারে ভেবে দেখেন।

ঘরের দেওয়াল থেকে উদ্ধার করা ১৯৪৪ সালের সেই চিঠি।

পুলিশ ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা কর্তৃপক্ষকে শুভকামনা জানিয়েছেন। অনেকে এই চিঠির রহস্য সমাধানে অনেক বেটি মিলারের খোঁজ দিয়েছেন।

কর্তৃপক্ষের এখন একটাই লক্ষ্য, চিঠিটির প্রাপক মিলার বা পরিবারের কাছে এই চিঠিটি পৌঁছে দেওয়া।

ঘরের দেওয়াল থেকে উদ্ধার করা ১৯৪৪ সালের সেই চিঠি।

যেমন আশ্চর্যজনকভাবে দেওয়ালের মাঝে পাওয়া গেলো চিঠিটা তেমনভাবেই হয়ত পাওয়া যাবে চিঠির প্রাপককেও, এমনটাই আশা করছেন সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীরা।

অর্থসূচক/এসবিটি

এই বিভাগের আরো সংবাদ