বাংলাদেশে পাচার কালে সীমান্তে বিপুল বিস্ফোরক আটক করেছে বিএসএফ

বিএসএফ

Bsf1গত কয়েক দিনে  অস্ত্রসহ বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক জব্দ করেছে  ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। আন্তর্জাতিক সীমান্ত দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে পাচারকালে এইসব বিস্ফোরক জব্দ করা  হয়। বাংলাদেশে বর্তমানে সহিংসতায় নাশকতা সৃষ্টিতে এই সকল বিস্ফোরক ব্যবহার করার জন্য পাচার হচ্ছে বলে বিএসএফ এর একটি সুত্র জানিয়েছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

 

জানা গেছে, শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত মালদা এবং মুরশিদাবাদে পৃথকভাবে অভিযান চালিয়ে বিএসএফ ৩২ কেজি বিস্ফোরক জব্দ করেছে।

সর্বশেষ সোমবার ১২৫ ব্যাটেলিয়ানের একটি দল মালদার কালিয়াচক পুলিশ স্টেশনের কাছাকাছি চুরিয়াতপুরে অভিযান চালায়।এসময় মোহাব্বাদপুর গ্রামের  স্থানীয় বাসিন্দা জিয়াজুল হক (২৩) কে অপেক্ষাকৃত নিম্মমানের ১২ কেজি বিস্ফোরক সহ হাতে নাতে গ্রেপ্তার করা হয় । হক সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে এসব বিস্ফোরক পাঠাতে চেষ্ঠা্ করছিল বলে জানায় সেনাসদস্যরা।

একইভাবে, শুক্রবার মুর্শিদাবাদের সুটিয়া পুলিশ স্টেশনের কাছাকাছি নিমতিয়াই অভিযান চালায় ২০ ব্যাটেলিয়ানের একটি সেনাদল। এসময় তারা কিছু পরিমানে কম মানের বিস্ফোরক জব্দ করে।

বিএসএফএর একজন কর্মকর্তা জানান, কম মানের বিস্ফোরক হলেও এগুলোর প্রভাব অনেক ক্ষতিকর।

এর আগে গত বুধবার ১২৫ ব্যাটালিয়ানের সেনাদল চুরিয়াতপুরে অভিযান চালিয়ে পিস্তল, ম্যাগাজিন এবং গোলাবারূদসহ সাকির হোসাইন আলিয়াস বাকির(৪০) এবং আবু সালাম(১৮) নামে দুইজন ভারতীয়কে আটক করে। এরা দুজনই মোহাব্বাতপুর গ্রামের বাসিন্দা ।

এসময় আটককৃতদের কাছ থেকে দুইটি পিস্তল, চৌদ্দ রাউন্ড গুলি, তিনটি মোবাইল ফোন এবং ১৪৫ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়। আন্তর্জাতিক সীমান্ত দিয়ে এসব বিস্ফোরক বাংলাদেশে পাচারকালে তাদের হাতে নাতে ধরা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের মধ্যে শুধু মালদা বিভাগের সেনারাই এ পর্যন্ত ১৮ টি পিস্তল, ২৮ টি ম্যাগাজিন এবং ৮৮ রাউন্ড গুলি জব্দ করেছে।