মাখলুকুরের হত্যাকান্ড পরিকল্পিত

ডা. মাখলুকুর রহমান মুরাদের হত্যাকান্ড পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলে দাবি করলেন তার সহকর্মী ও বিভিন্ন মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা। একই সাথে এর সুষ্ঠু তদন্ত করে সঠিক বিচারেরও দাবি জানান তারা। মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনের আয়োজন করে এর প্রতিবাদ জানান তারা।

ডা. মাখলুকুর রহমান মুরাদ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের ৮ম ব্যাচের ছাত্র। অপহৃত হওয়ার ৩ দিন পর গণস্বাস্থ্য নগর পটুয়াখালী কেন্দ্রের পুকুর হতে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। মাখলুকুর রহমানের সহকর্মী এবং বিভিন্ন মেডিকেলের শিক্ষার্থীরা তার এই মৃত্যুকে স্বাভাবিক মৃত্যু বলে মানতে নারাজ।

মুরাদ সাভার গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে কর্মরত অবস্থায় পটুয়াখালীর গলাচিপায় গণস্বাস্থ্যনগর হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের ৫৬ জনের একটি দল গত বৃহস্পতিবার পটুয়াখালীর গলাচিপা প্রতিষ্ঠানের উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে যায়।

শুক্রবার রাতে ডা. মুরাদের কাছে একটি ফোন আসে। ফোন পেয়ে তিনি বাইরে যান। এরপর থেকেই তার আর কোন খোঁজ পা্ওয়া যায় নি। রোববার বিকেলে ওই উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পুকুরে তার লাশ পাওয়া যায়।

মানববন্ধনের ডা. মুরাদের সহকর্মীরা বলেন, চিকিৎসক মাখলুকুর রহমানকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। নিখোঁজ হওয়ার পরেও কর্তৃপক্ষ তাকে উদ্ধারের জন্য কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করে নি। যারা এ ঘটনার সাথে জড়িত, অবিলম্বে তাদের গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার সকালে ডা.  মুরাদের পোস্টমর্টেম করা হবে বলে জানান তার সহকর্মীরা। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর অন্যান্য আরও কর্মসূচি হাতে নেয়া হবে বলে জানান তারা।

এছাড়া, আগামিকাল ডা. মুরাদের হত্যাকন্ডের প্রতিবাদে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের সামনে মানববন্ধন করা হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ডা. নওরীন, ডা. তনীমা, এ্যানী, অবণ্তিক প্রমুখ।

জেইউ/এএস