স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ার বিক্রিঃ সময় বাড়ানোর চিঠি দিয়েছে বিএসইসি
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » সর্বশেষ

স্টক এক্সচেঞ্জের শেয়ার বিক্রিঃ সময় বাড়ানোর চিঠি দিয়েছে বিএসইসি

কৌশলগত বিনিয়োগকারীর (Strategic Investor) কাছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) শেয়ার বিক্রির সময়সীমা আরও ৬ মাস  জন্য ৬ মাস সময় বৃদ্ধির নির্দেশনা দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)।

আজ সোমবার এ সংক্রান্ত একটি চিঠি উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে পাঠানো হয়েছে। কমিশন সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

চিঠিতে বলা হয়, বর্ধিত সময়ের মধ্যে কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রি সম্পন্ন করতে হবে। যদি নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেয়ার বিক্রি সম্পন্ন করা না হয়; তাহলে বিএসইসি ২০১৩ সালের ডিমিউচুয়ালাইজেশন আইন অনুযায়ী আবার সময় বাড়াতে পারে অথবা কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের ছাড়া অন্য কোথাও শেয়ার বিক্রির নির্দেশনা দিতে পারে।

ডিমিউচুয়ালাইজেশন আইন অনুযায়ী, ২০১৬ সালের মধ্যে কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের কাছে শেয়ার বিক্রির করার কথা ছিল। কিন্তু ক্রেতাদের কাছ থেকে সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না এমন অজুহাতে সময় বাড়ানোর আবেদন জানালে বিএসইসি প্রথম দফায় এক বছর সময় বাড়িয়ে দেয়।

গত ডিসেম্বরে ওই সময়সীমা শেষ হয়ে যায়। স্টক এক্সচেঞ্জের অনুরোধে আরেক দফা সময় বাড়িয়ে ২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়। কিন্তু এ সময়ের মধ্যেও কার্যকর কোনো অগ্রগতি না হওয়ায় স্টক এক্সচেঞ্জের অনুরোধে তৃতীয়বারের মতো সময় বাড়ানো হয়। এ দফায়ও সময় বাড়ানো হলো ৬ মাস। যার দাপ্তরিক নির্দেশনা আজ জানানো হলো।

ডিমিউচুয়ালাইজেশন আইনে স্টক এক্সচেঞ্জের ২৫ শতাংশ শেয়ার কৌশলগত বিনিয়োগকারীর কাছে বিক্রি করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। ২০১৩ সালে প্রণীত এক্সচেঞ্জেস ডিমিউচ্যুয়ালাইজেশন আইনের মাধ্যমে স্টক এক্সচেঞ্জের মালিকানা ও ব্যবস্থাপনাকে আলাদা করা হয়েছে। এছাড়া অলাভজনক কোম্পানি থেকে স্টক এক্সচেঞ্জকে মুনাফামুখী কোম্পানিতে রূপান্তর করা হয়। এ আইন অনুসারে স্টক এক্সচেঞ্জের ২৫ ভাগ শেয়ার কৌশলগত বিনিয়োগকারীর (Strategic Investor) কাছে বিক্রি করতে হবে।

জানা গেছে, গত মাসে ডিএসই কর্তৃপক্ষ শেয়ার বিক্রির সময়সীমা ৩ বছর বাড়াতে বিএসইসির কাছে আবেদন জানায়। বিষয়টি নিয়ে ২২ জুন ডিএসইর পরিচালনা পরিষদ বিএসইসির সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে ডিএসইর পক্ষ থেকে সর্বশেষ অবস্থা তুলে ধরে ৩ বছর সময় বাড়ানোর অনুরোধ জানানো হয়। জবাবে বিএসইসি ৬ মাস সময় বাড়াতে সম্মত হয়।

অর্থসূচক/মাহমুদ/এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ