৫টি গাড়ির মালিক হয়েও কেন ভিক্ষা করতেন তারা?
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

৫টি গাড়ির মালিক হয়েও কেন ভিক্ষা করতেন তারা?

২১ সদস্যের পরিবার। আল কাসিম প্রদেশে আছে একটি ফ্ল্যাট। পাঁচ পাঁচটি গাড়িও আছে তাদের। আছে উপসাগরীয় যেকোনো দেশে বসবাস করার অনুমতিও। তারপরও ওই পরিবারের সদস্যরা ভিক্ষা করতেন।

কিন্তু কেন ভিক্ষা করতেন তারা?

সেই উত্তর মিলল সৌদির পুলিশ তাদের আটকের পরে। পুলিশ জানিয়েছে, মূলত আরব আমিরাতের এই নাগরিকরা তাদের গাড়িগুলোর জ্বালানির খরচ তুলতেই আল কাসিম প্রদেশে ভিক্ষা করতো।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা দীর্ঘ দিন ওই পরিবারের সদস্যদের ওপর নজর রাখার পরে অবৈধভাবে ভিক্ষা করার অভিযোগে ২১ সদস্যকে আটক করেছে।

পুলিশের ভাষ্য, পরিবারের নারী, শিশুসহ মোট ২১ সদস্যই ভিক্ষাবৃত্তিতে লিপ্ত ছিল। আর আল কাসিম প্রদেশের ফ্ল্যাটটি তারা তাদের সদর দপ্তর হিসেবে ব্যবহার করতো।

পুলিশ জানিয়েছে, আটকের সময় ওই পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে ১২ হাজার সৌদি রিয়াল ও ১৫০ আমিরাতের দিরহাম জব্দ করেছে তারা। এছাড়া এ সময় স্বর্ণালংকার এবং উপসাগরীয় দেশগুলোতে বসবাসের অনুমতিওপত্রও জব্দ করেছে তারা।

এই পরিবারের সদস্যরা চলার পথে কখনও কখনও গাড়ি থামিয়ে পথচারি বা দোকানিদের কাছে হঠাৎ বিপদের অযুহাতে সাহায্য চাইতেন।

আটকের পরে ওই পরিবারের প্রধান পুরুষটি জানিয়েছেন, মূলত তারা গাড়ির জ্বালানির জন্য ভিক্ষা করতেন।

ভিক্ষা জন্য পরিবারের প্রধান নারী একটি শিশুসহ ভিন্ন বিপণনি বিতানের সামনে দাড়াতেন আর আমিরাতের ভাষায় সকলের কাছে সাহায্য চাইতেন।

আর পুরুষটি কুয়েতের ভাষায় সহায়তা চাইতেন পথচারী বা দোকানিদের কাছে।

তবে এক সময় ওই প্রদেশের দোকানিদের সন্দেহ হয়। তারা পুলিশকে জানায়। এরপর পুলিশ নিয়মিত নজর রাখতে শুরু করেন পরিবারটির ওপর । তার প্রেক্ষিতেই সম্প্রতি ওই পরিবারের ২১ সদস্যকে আটক করা হয়।

টি

এই বিভাগের আরো সংবাদ