এনআইডি ছাড়াও ৩৮তম বিসিএসে আবেদন করা যাচ্ছে
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

এনআইডি ছাড়াও ৩৮তম বিসিএসে আবেদন করা যাচ্ছে

৩৮তম বিসিএসের আবেদন করতে বাধ্যতামূলক জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর (এনআইডি) সাবমিট করতে হচ্ছে না। তবে চূড়ান্ত ফল প্রকাশের আগে যেকোনো সময় এনআইডি চাওয়া হবে।

আজ মঙ্গলবার ৩৮তম বিসিএসের আবেদন প্রক্রিয়া শুরুর দ্বিতীয় দিনে সরকারি কর্ম কমিশনের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ক্যাডার) আ.ই.ম. নেছারউদ্দিন এই কথা জানান।

তিনি বলেন, ৩৮তম বিসিএসের আবেদনের জন্য দুইটি অপশন রাখা হয়েছে। আবেদনের সময় এনআইডি জমা দেওয়া যাবে। আবার এনআইডি ছাড়াও আবেদন করা যাবে। তবে যারা আবেদনের সময় এনআইডি জমা দেবেন না- চূড়ান্ত ফল প্রকাশের আগে যেকোনো সময় তাদের এনআইডি চাওয়া হবে। যদি কারও এনআইডি হারিয়ে যায়; নষ্ট হয়ে যায় কিংবা পাওয়া না যায়- সেক্ষেত্রে কমিশনকে জানাতে হবে।

bgwc

বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন ভবন। ছবি সংগৃহীত

আ.ই.ম. নেছারউদ্দিন বলেন, বিসিএসের জন্য আবেদনের পর ভুয়া প্রবেশপত্র তৈরি করে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এই অপরাধ ঠেকাতে বিসিএসের আবেদনের সময় এনআইডি বাধ্যতামূলক করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে এনআইডি এখনও পুরোপুরি বাধ্যতামূলক করা হয়নি। পর্যায়ক্রমে সেটা বাধ্যতামূলক করা হবে। প্রাথমিক অবস্থায় দুইটি অপশন রাখা হয়েছে। এখন এনআইডি ছাড়াও আবেদন করা যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, এনআইডি ছাড়া আবেদনের সুযোগ দেওয়ায় যাদের এনআইডি কার্ড নেই- তাদের অনেকেই ইতোমধ্যে ৩৮তম বিসিএসে অংশ নিতে আবেদন করেছেন।

৩৮তম বিসিএস নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির ১৪ (৬) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, এনআইডি নম্বর অনলাইন আবেদনপত্রের নির্ধারিত স্থানে উল্লেখ করতে হবে। কমিশন কর্তৃক নির্দেশিত সময় তা প্রদর্শন করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষার সময় এনআইডির মূল কপি প্রদর্শন এবং সত্যায়িত কপি জমা দিতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে গেলে বা বিনষ্ট হলে তা পুনঃপ্রাপ্তির যথাযথ পদ্ধতি অনুসরণ করে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ কমিশনকে লিখিতভাবে জানাতে হবে।

অর্থসূচক/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ