'আমানতকারীদের তুলনামূলক বেশি সুদ দেয় মার্কেন্টাইল ব্যাংক'
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

‘আমানতকারীদের তুলনামূলক বেশি সুদ দেয় মার্কেন্টাইল ব্যাংক’

দেশের অন্য যেকোনো ব্যাংকের তুলনায় আমানতকারীদের বেশি সুদ দেয় মার্কেন্টাইল ব্যাংক। বিশেষ করে স্কিম ডিপোজিটগুলোতে তুলনামূলক বেশি সুদ দেওয়া হয়। ৩৫ থেকে ৩৬ শতাংশ আমানতের উপরে ১০ শতাংশের উপরে সুদ দেওয়া হয়।

আজ সোমবার রাজধানীর মতিঝিলে ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কাজী মসিহুর রহমান। মার্কেন্টাইল ব্যাংক সম্মাননা ২০১৭ প্রদান এবং ব্যাংকের ১৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এসময় ব্যাংকের চেয়ারম্যান শহিদুল আহসানসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Moshihur Rahman Mercantile Bank CEO

মার্কেন্টাইল ব্যাংক সম্মাননা প্রদান এবং প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ব্যাংকটির প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে
ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) কাজী মসিহুর রহমান। ছবি: মহুবার রহমান

মসিহুর রহমান বলেন, বেশি সুদ দেওয়ার কারণে আমাদের কস্ট অব ডিপোজিট অনেক বেশি; যা প্রায় ৬ শতাংশের মতো। দেশের অনেক ব্যাংকের কস্ট অব ডিপোজিট ২-৩ শতাংশ মাত্র। এছাড়া ৭-৮ শতাংশ স্প্রেড নিয়ে অনেকেই ব্যাংক পরিচালনা করছেন।

তিনি আরও বলেন, ২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত মার্কেন্টাইল ব্যাংকের মোট আমানত ২০ হাজার ২৭৯ কোটি টাকা; ঋণ ও অগ্রিম ১৭ হাজার ৮৯৯ কোটি টাকা এবং মুনাফা ৩২৫ কোটি টাকা। অনেক কষ্ট ও শ্রম দিয়েই মুনাফা অর্জন করেছে মার্কেন্টাইল ব্যাংক। ব্যাংকারদের কষ্ট আর শ্রমের ফলেই এই মুনাফা অর্জন সম্ভব হয়েছে।

মার্কেন্টাইল ব্যাংকের সিইও বলেন, ২০১৭ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত আমাদের ব্যাংকের মাধ্যমে রপ্তানি ছিল ৬ হাজার ৫৩৮ কোটি টাকা; আমদানি ৯ হাজার ২২৯ কোটি টাকা এবং রেমিট্যান্স এসেছে ১ হাজার ২০৬ কোটি টাকা।

ব্যাংকের মুনাফা বাড়ার কারণ সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কাজী মসিহুর রহমান বলেন, বাংলাদেশের সব ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে ব্যাংকিং ইন্ডাস্ট্রির ব্যবসা অনেক স্বচ্ছ। অনেক অডিটের পর আমাদের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনীতির ‍উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংকিং খাতও এগিয়ে যাচ্ছে। এটি একটা প্রতিযোগিতামূলক ব্যবসা। কেউ যদি মনে করেন বেশি সুদ নেবেন- সেটা সম্ভব নয়। আবার কম সুদ দেওয়াও সম্ভব নয়। অন্য যেকোনো ব্যাংকের চেয়ে আমানতকারীদের মার্কেন্টাইল ব্যাংক অনেক বেশি সুদ দেয়।

মার্কেন্টাইল ব্যাংক সূত্র জানিয়েছে, বর্তমানে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের মোট ১১৯টি শাখা এবং ১৫৩টি এটিএম বুথ রয়েছে। ব্যাংকের মোট মানবসম্পদ ২ হাজার ৮১ জন। আন্তর্জাতিক বাণিজ্য পরিচালনায় বিভিন্ন দেশে ৬৫২টি প্রতিনিধিত্বকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। প্রবাসী বাংলাদেশিদের অর্থ দ্রুত ও নিরাপদে লক্ষ্যে পৌঁছে দিতে ৩৩টি দেশি-বিদেশি এক্সচেঞ্জ হাউজের সঙ্গে মার্কেন্টাইল ব্যাংকের চুক্তি রয়েছে। মার্কেন্টাইল ব্যাংকের দুইটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি আছে। সেগুলো হলো- মার্কেন্টাইল ব্যাংক সিকিউরিটিজ লিমিটেড এবং মার্কেন্টাইল এক্সচেঞ্জ হাউজ (যুক্তরাজ্য) লিমিটেড।

সূত্র আরও জানিয়েছে, ২০১৭ সালে ব্যাংকটির উল্লেখযোগ্য কর্মকাণ্ডের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা তহবিলে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকা অনুদান; জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্ট তহবিলে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকা অনুদান; ১ হাজার ৯১ জন শিক্ষার্থীর মাঝে মোট ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা মার্কেন্টাইল ব্যাংক আব্দুল জলিল শিক্ষা বৃত্তি প্রদান।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৯ সালের ২ জুন মার্কেন্টাইল ব্যাংক প্রতিষ্ঠিত হয়। এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মরহুম মো. আব্দুল জলিল।

অর্থসূচক/মেহেদী/এমই/

এই বিভাগের আরো সংবাদ