নতুন ভ্যাটে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ
বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

নতুন ভ্যাটে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ

ভারতের মানুষের শনিবার ঘুম ভেঙ্গেছে মোদি সরকারের নতুন ভ্যাট ব্যবস্থার খবর শুনে। কারণ শুক্রবার মধ্যরাতেই সরকার ৪ ভিত্তিহারের কর ব্যবস্থা চালু করেছে। নতুন এই ব্যবস্থায় এখন থেকে পণ্য ও পরিষেবায় ৫ শতাংশ, ১২ শতাংশ, ১৮ শতাংশ এবং ২৮ শতাংশ ভ্যাট পরিশোধ করতে হবে।

সরকারের পক্ষ থেকে এ ভ্যাটকে ভারতের অর্থনৈতিক উন্নয়নের নতুন যাত্রার প্রদর্শক হিসেবে দেখা হচ্ছে।

জিএসটি বাস্তবায়নের বিরুদ্ধে কাশ্মীরের শ্রীনগরে রাস্তায় ব্যবসায়ীরা

ভারতীয় মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছে, এতে রাজস্ব বৃদ্ধি, পণ্যের দামের সরলীকরণ হবে। আগামীতে সার্বিক কর নীতি প্রয়োগও আরও সহজ হবে। জিডিপি বৃদ্ধি হতে পারে ১.৫ শতাংশ হারে।

কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে এ ভ্যাটের বিরুদ্ধে সন্তুষ্ট নন ব্যবসায়ীরা। ভ্যাট চালুর প্রথম দিনেই রাস্তায় নেমেছে তারা। শনিবার ভারতজুড়ে বিক্ষোভ প্রতিবাদের মিছিল বের হতে দেখা যায়।

বিজনেস স্টান্ডার্ডের খবরে বলা হয়, ভ্যাটের প্রতিবাদে এদিন তামিলনাড়ুতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা বিশেষ করে সিনেমা হল মালিকরা, আতশবাজি, দেয়াশলাই ও গার্মেন্টস কারখানাগুলো তাদের ব্যবসা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়।

আঞ্চলিক সিনেমার টিকেটের উপর পণ্য ও পরিষেবা করের হার নিতে তীব্র আপত্তি দেশজুড়ে। আর এর প্রতিবাদে সোমবার থেকে ৯৫০টি সিনেমা হল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তামিলনাড়ুর হল মালিকরা। তারা অনলাইনে টিকেট বুকিংও সাময়িক বন্ধ রেখেছে।

এদিকে ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদের মুখে রাজ্য সরকার জানিয়েছে, তারা জিএসটিতে ৩০ শতাংশ ও ২৮ শতাংশ করের বিষয়টি নিয়ে সরকারের সঙ্গে বসবে।

জিএসটিতে ২৮ শতাংশ করের প্রতিবাদে তামিলনাড়ুর বেশকিছু এলাকায় দেয়াশলাই ও আতজবাজি কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তাদের আশঙ্কা, নতুন জিএসটিতে ভারতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীদের দিন শেষ, চীন থেকে আমদানি বাড়বে।

এস সুরেন্দার নামে এক ব্যবসায়ী নেতা জানান, জিএসটি প্রস্তাবনা টেক্সটাইল, অন্যান্য ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তাদের উপর ব্যাপকভাবে নেতিবাচব প্রভাব ফেলবে। নতুন কর অনুযায়ী, কটন সুতায় ৫ শতাংশ এবং সিনথেটিক সুতায় ১৮ শতাংশ জিএসটি বসানো হয়েছে। এছাড়া ডাইং, ব্লিচিং, কালারিং ও প্যাকেজিংএ ভিন্ন হারে কর বসানো হয়েছে।

গুজরাটে জিএসটি নিয়ে ডায়মন্ড ব্যবসায়ীরা গত শনিবার থেকে বিক্ষোভ করছে। তারা বলছে, ২৮ শতাংশ কর ভারতে এ শিল্পকে তছনছ করে দেবে।

ডায়মন্ড ব্যবসায়ীদের সোমবার এ নিয়ে রাজ্যের উপ-প্রধান মন্ত্রী নিতিন প্যাটেলের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে।

কাশ্মীরে বিরোধী দলীয় নেতারা জিএসটি নিয়ে ব্যবসায়ীদের এ বিক্ষোভে সমর্থন জানিয়েছে। এ এলাকায়ও অধিকাংশ ব্যবসায়ীরা ভ্যাটের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে অনড়।এদিকে মধ্যপ্রদেশের খুচরা বাজার এখন মরুভূমি। পশ্চিমবঙ্গেও একই অবস্থা। এ রাজ্যের অধিকাংশ ব্যবসায়ী শনিবার বিক্ষোভ করার পর তাদের দোকান পাট বন্ধ রেখেছে।

এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ