বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে সক্রিয় পাচারকারী চক্র
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে সক্রিয় পাচারকারী চক্র

ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রলোভনে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে গজিয়ে উঠছে অসাধু চক্র। তাদের ফাঁদে পড়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি অবৈধ অনুপ্রবেশ ও জাল নথি পত্র রাখার জন্য অনেক বাংলাদেশিই সাজাভোগ করছেন বলে আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে।

এ ঘটনার সাথে জঙ্গিদের সম্পৃক্ততা আছে কি না তা খতিয়ে দেখছে ভারতের পুলিশ। তবে জঙ্গিরাই প্রথম এই প্রতারণা শুরু করেছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।

বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত। ফাইল ছবি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে এক শ্রেনির অসাধু চক্র অর্থের বিনিময়ে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাইয়ে দেওয়ার ফাঁদ পাতে। সেজন্য তারা ইচ্ছুক ব্যক্তিদের ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়া মানে ভালো চাকরি, নিরাপদ জীবনধারণ ইত্যাদি বলে প্রলোভন দেখায়। অসাধু চক্র নিখুঁত ভাবে আধার কার্ড, প্যান কার্ড, রেশন কার্ড, ভোটার পরিচয় পত্র ইত্যাদি সরবরাহ করে যা ভুক্তভোগী সহজে বুঝতে পারে না। কিন্তু ধরা পড়ে অনেকেই দূতাবাসের শরণাপন্ন হন স্বদেশে ফেরার জন্য। এরকম ভুক্তভোগী অনেকের সাথে কথা বলে প্রচুর অর্থ দিয়ে বৈধ হিসেবে গ্রহণ করার পর তাদেরকে জাল নথি-পত্র দিয়ে দালাল কর্তৃক প্রতারিত হওয়ার সত্যতা পাওয়া গেছে।

ভারতের উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার ঠাকুরনগর-শিমুলপুর এলাকায় এরকম জাল তথ্য বিক্রির কারবার চলছে এমন খবরে সেখান থেকে ৪ জনকে গ্রেফতার করার পর সেখানে এই ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেলেও বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের অনেক জায়গায় এখনো এরকম চক্র সক্রিয় রয়েছে বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

অর্থসূচক/ কে এম

এই বিভাগের আরো সংবাদ