মমতার কন্যাশ্রী সম্পর্কে এ কী বললেন তসলিমা!
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

মমতার কন্যাশ্রী সম্পর্কে এ কী বললেন তসলিমা!

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর হঠাৎ চড়াও হয়েছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। আজ শনিবার নিজের ফেসবুক একাউন্টে দেওয়া এক পোস্টে মমতা ও তার কন্যাশ্রী প্রকল্পের প্রতি তীব্র শ্লেষ ঝরিয়েছেন তিনি।

কন্যা-শিশুদেরকে শিক্ষায় উৎসাহিত করতে ২০১৩ সালে মমতার সরকার আলোচিত কন্যাশ্রী প্রকল্প চালু  করে। এ প্রকল্পের জন্য তিনি জাতিসংঘের কাছ থেকে পুরস্কার পান।

Taslima-Mamata

তসলিমা নাসরিন ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

তবে কন্যাশ্রী প্রকল্প পশ্চিমবঙ্গদের নারীদের উন্নয়নে খুব সামান্যই ভূমিকা রাখতে পেরেছে বলে উল্লেখ করেন তসলিমা নাসরিন। তার মতে, এখনও পশ্চিমবঙ্গে নারী নির্যাতন, নারীর প্রতি বৈষম্য প্রবল। তিনি রাজ্যের কুখ্যাত যৌনপল্লী সোনাগাছিসহ অন্যান্য যৌনপল্লীতে হাজার হাজার নারী যৌনদাসী হিসেবে অমানবিক জীবন-যাপন করছে বলেও উল্লেখ করেন।

ফেসবুকে তার এই পোস্টকে কেন্দ্র করে এর পক্ষে-বিপক্ষে অসংখ্য মন্তব্য করা হয়েছে।

ফেসবুকে তসলিমা নাসরিন লিখেন, ‘রাষ্ট্রপুঞ্জ মমতা বন্দোপাধ্যায়কে রাজ্যের কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য পুরস্কৃত করেছে। চমৎকার! কন্যাদের শ্রী দেখতে চাইলে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম বেশ্যালয় সোনাগাছি ঘুরে আসুন, ঘুরে আসুন কালীঘাট, বউবাজার, খিদিরপুর, লেবুতলার বেশ্যালয়, কন্যারা কী করে পূতিগন্ধময় নিকৃষ্ট পরিবেশে যৌনদাসীর জীবন যাপন করতে বাধ্য হচ্ছে দেখে আসুন। কী করে কন্যাশিশু পাচার হচ্ছে, বিক্রি হয়ে যাচ্ছে পতিতালয়গুলোতে প্রতিদিন, দেখে আসুন। ‘

Sonagachi.jpg

এশিয়ার বৃহত্তম যৌনপল্লী পশ্চিমবঙ্গের সোনাগাছিতে খদ্দেরের অপেক্ষায় থাকা কয়েকনজন যৌনকর্মী

তসলিমা আরও লিখেন, ‘কন্যারা শুধু ধর্ষণের নয়, গণধর্ষণের শিকার হচ্ছে। রাস্তা ঘাটে অলিতে গলিতে কন্যাদের যৌন হেনস্থা দিন দিন বাড়ছে। ঘরের ভেতর শত শত কন্যা প্রতিদিন স্বামী-শ্বশুরবাড়ির নির্যাতন সইছে দেখে আসুন। লেখাপড়া জানা কন্যারাও নির্যাতন অসহ্য হয়ে উঠলে আত্মহত্যা করছে , চলুন দেখে আসি কত শত কন্যাকে পণপ্রথার শিকার হতে হচ্ছে, বধূহত্যার হারই বা কেমন বাড়ছে দেখে আসি। বাল্য বিবাহের শিকার কত লক্ষ কন্যা , দেখে আসি চলুন। কী বলছি কী! আমি কী করে দেখবো, আমার তো পশ্চিমবঙ্গে প্রবেশ নিষেধ! কারণ আমি যে মস্ত বড় এক অপরাধ করেছি! কন্যাদের সমানাধিকার চেয়ে দু’ডজন বই লিখেছি!!’

তসলিমার এই পোষ্টের পর তার বক্তব্যের পক্ষে-বিপক্ষে অনেক মন্তব্য পোষ্ট হয়েছে, হচ্ছে।  দীলিপ ভট্টাচার্য নামে পশ্চিবঙ্গের সাবেক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক লিখেছেন, কন্যাশ্রী originally নীতিশ কুমারের প্রকল্প । সারা জীবন টুকলি করা দিদি এটিও তাই করেছেন । প্রচারের ঢক্কানিনাদে বহু কেন্দ্রীয় প্রকল্পও তার ছবিসহ বিপণন করা হচ্ছে । পশ্চিমবঙ্গকে নারী শিশু পাচারে শীর্ষস্থানে তুলে আনা ও ধর্ষণে দ্বিতীয় স্থানে পৌঁছে দেওয়া অবশ্যই তার একক কীর্তি । বাল্যবিবাহ গ্রামাঞ্চলে বিশেষ কমে নি ।স্কুলে drop out কমেছে ঠিকই, কিন্তু পড়াশোনার পাটের বিনিময়ে, মিড ডে মিলের হাতছানিতে এবং সেই প্রকল্প টিও দিদির নয় । শুধু বাড়ছে ,বেড়েই চলেছে মাদ্রাসা ও মুসলিম মৌলবাদ। পাল্টা চাষ শুরু হয়েছে হিন্দু মৌলবাদী তৎপরতার । বামফ্রন্ট সরকারের মধ্যমেধার দলদাসদের রমরমা কমে এখন নিম্নমেধার হাইব্রিড চাষ হচ্ছে । সুতরাং, অতলগামিতার গতিতে আরও একটু বেশি বেগ সঞ্চারিত হয়েছে মাত্র, আর কিছু নয় । আপনার লেখাটি অবশ্যই প্রশংসার অপেক্ষা রাখে না ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ