পাইপলাইনে ৫ কোম্পানির রাইট আবেদন
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

পাইপলাইনে ৫ কোম্পানির রাইট আবেদন

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত পাঁচটি কোম্পানি রাইট (অগ্রাধিকারমূলক) শেয়ার ইস্যু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ উদ্দেশ্যে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনে (বিএসইসি) আবেদন করেছে কোম্পানিগুলো। এর আগে নেওয়া হয়েছে শেয়ারহোল্ডারদের সম্মতি। বিএসইসি ও কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

রাইট শেয়ার ইস্যুর আবেদন করা কোম্পানিগুলো হলো- এবি ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড, সিএমসি কামাল টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড এবং জিকিউ বলপেন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

জানা গেছে, আলোচিত কোম্পানিগুলোর কোনো কোনোটি ব্যবসা সম্প্রসারণ, কোনোটি আবার ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুসারে মূলধন বাড়াতে রাইট ছেড়ে টাকা তুলবে। তবে সব কিছু নির্ভর করছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির সিদ্ধান্তের উপর। সবকিছু যাচাই-বাছাই করে রাইটের অনুমোদন দেবে সংস্থাটি

এবি ব্যাংক: এবি ব্যাংক লিমিটেড ৫টি শেয়ারের বিপরীতে ৪টি রাইট শেয়ার ছাড়ার আবেদন করেছে। এর আগে ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সঙ্গে ২.৫০ টাকা প্রিমিয়ামসহ সাড়ে ১২ টাকা দরে রাইট ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিল এবি ব্যাংক।

সাউথইস্ট ব্যাংক: সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড ১:২ অনুপাতে (২টি সাধারণ শেয়ারের বিপরীতে ১টি রাইট) শেয়ার ইস্যু করতে চায়। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সাথে ২ টাকা ৫০ পয়সা প্রিমিয়াম মিলে সাড়ে ১২ টাকায় রাইট শেয়ার কিনতে পারবে বিনিয়োগকারীরা। গত ২২ মে এর জন্য বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে গত ৮ এপ্রিল কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের সভায় এই রাইট ছাড়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়।

কোম্পানিটির অনুমোদিত মুলধন দেড় হাজার কোটি টাকা আর পরিশোধিত মূলধন ৯১৬ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটি ব্যাংকের মূলধন সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য ব্যাসেল টু এর শর্ত পূরণ করতে চায়।

রাইটের মাধ্যমে (প্রিমিয়ামসহ) কোম্পানিটি ৫৭৩ কোটি ৯ লাখ ৩০ হাজার টাকা তুলবে। রাইটের পরে পরিশোধিত মুলধন হবে ১ হাজার ৩৭৫ কোটি ৪২ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

লংকাবাংলা ফাইন্যান্স: ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক খাতের কোম্পানি লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেড ১:২ হারে অর্থৎ বিদ্যমান ২টি শেয়ারের বিপরীতে ১টি হিসেবে ১৩ কোটি ৮৩ লাখ ৬৯ হাজার ৯৭৫টি শেয়ার ইস্যু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু রাইট শেয়ার ইস্যুর এ প্রস্তাব এখন পর্যন্ত নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমোদন পায়নি। এর মধ্যে কোম্পানিটি ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬ তারিখে সমাপ্ত হিসাববছরের জন্য ১৫ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করে। এতে কোম্পানির মূল শেয়ারের সংখ্যা বেড়ে গেছে। তাই অনুপাত ঠিক রাখতে রাইটে শেয়ারের সংখ্যা বাড়াতে হচ্ছে। কোম্পানিটি এখন ১৫ কোটি ৯১ লাখ ২৫ হাজার ৪৭০টি শেয়ার ইস্যু করবে। তবে শেয়ারের ইস্যু মূল্য আগের মতোই ১০ টাকা থাকছে।

সিএমসি কামাল: ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে একটি শেয়ারের বিপরীতে একটি রাইট শেয়ার ইস্যুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটি।

জিকিউ বলপেন: জিকিউ বলপেন ১০ টাকা ফেসভ্যালুতে একটি শেয়ারের বিপরীতে এক দশমিক ৫টি রাইট শেয়ার দেবে। অর্থাৎ দুইটি শেয়ারের বিপরীতে ৩টি রাইট শেয়ার ইস্যুর জন্য আবেদন করেছে কোম্পানিটি।

অর্থসূচক/গিয়াস

এই বিভাগের আরো সংবাদ