আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট
today-news
brac-epl
প্রচ্ছদ » App Home Page

আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট

আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে দেশের প্রথম সারির সম্পদ ব্যবস্থাপক প্রতিষ্ঠান ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি স্বপ্রণোদিত হয়ে মার্কিনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সিএফএ ইনস্টিটিউটের আন্তর্জাতিক নীতিমালা গ্রহণ করেছে।

কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র মতে, বাংলাদেশের প্রথম সম্পদ ব্যবস্থাপক হিসেবে সিএফএ ইনস্টিটিউট থেকে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট ম্যানেজার কোড অফ প্রফেশনাল কন্ডাক্টে তালিকাভুক্ত হয়েছে। ফলে এখন থেকে প্রতিষ্ঠানটি কোডের নীতিমালা মেনে পরিচালিত হবে।

সিএফএ ইনস্টিটিউট বিশ্বব্যাপী বিনিয়োগ ক্ষেত্রে পেশাদারিত্বের গ্রহণযোগ্য মাপকাঠি হিসেবে স্বীকৃত।

সূত্র মতে, বিশ্বজুড়ে ১ হাজার ৩৬০টি প্রতিষ্ঠান এই কোড মেনে চলে। এদের মধ্যে রয়েছে ব্ল্যাকরক, স্টেট স্ট্রিট গ্লোবাল অ্যাডভাইজরস, জেপি মরগান অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট, মরগান স্ট্যানলি ইনভেস্টমেন্ট ম্যানেজমেন্ট, ওয়েলিংটন ম্যানেজমেন্ট প্রভৃতি।

প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, এই কোড অনুসরণ করা মানে শুধু কিছু নিয়ম নীতি মেনে চলাই নয়, বরং বিনিয়োগকারীদের সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করার জন্য নৈতিক মূল্যবোধসম্পন্ন একটি পরিবেশ তৈরি  প্রচেষ্টা। কোড মেনে চলার মাধ্যমে একটি কোম্পানি তার কর্ম পরিচালনায় বিশ্বব্যাপী গ্রহণযোগ্য নৈতিক কাঠামো অন্তর্ভূক্ত করে; যা  বিনিয়োগকারীদের কাছে আরও অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য করে তোলে। ফলে বিনিয়োগ খাতের সার্বিক নির্ভরযোগ্যতা বৃদ্ধি পায়।

এ বিষয়ে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের প্রধান নির্বাহী শহিদুল ইসলাম অর্থসূচককে বলেন, “বিনিয়োগকারীরা তাদের কষ্টার্জিত টাকা বিনিয়োগ করে; তাই বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ পেশাদারিত্ব এবং নৈতিকতা পাওয়ার অধিকারও তারা রাখে।”

তিনি আরও বলেন,“আমরা বাংলাদেশের বিনিয়োগ খাতের মান উন্নয়নের জন্য প্রতিনিয়ত কাজ করে যেতে চাই। সম্পদ ব্যবস্থাপকদের ওপর সাধারণ বিনিয়োগকারীদের আস্থা তৈরি করতে সিএফএ ইনস্টিটিউটের এই কোড গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

সিএফএ ইনস্টিটিউট অ্যাসেট ম্যানেজার কোড অফ প্রফেশনাল কন্ডাক্ট কী?

বিশ্বব্যাপী সম্পদ ব্যবস্থাপকেরা যেন একই মানদণ্ডের ভিত্তিতে তাদের ব্যবসায় নৈতিকতা এবং পেশাদারিত্ব পরিমাপ করতে পারে, সেজন্য মার্কিনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সিএফএ ইনস্টিটিউট এই কোড তৈরি করে। সম্পদ ব্যবস্থাপকরা স্বপ্রণোদিত হয়ে এই কোড অনুসরণ করেন। সিএফএ ইনস্টিটিউট নিয়মিত এই কোড হালনাগাদ করে এবং অনুসরণ করা কোম্পানিগুলো সমন্বয় করে।

এই কোডে ৬টি মূল দায়িত্ব পালনের কথা রয়েছে। সেগুলো হলো- পেশাদারিত্ব এবং নৈতিকতার সাথে বিনিয়োগকারীদের সেবা করা; তাদের সর্বোচ্চ সুবিধা নিশ্চিত করা; নিরপেক্ষতা এবং বস্তুনিষ্ঠতা বজায় রাখা; দক্ষতা এবং পেশাদারিত্বের সাথে সম্পদ ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগ্যতা বজায় রাখা; বিনিয়োগকারীদেরকে যথাসময়ে এবং সঠিকভাবে তথ্য প্রদান করা এবং সবশেষে পুঁজিবাজারে চলমান নিয়ম-কানুন সঠিকভাবে মেনে চলা।

ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট:

ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট বাংলাদেশের একটি প্রথম সারির সম্পদ ব্যবস্থাপক। কোম্পানিটি ২০০৯ সালে যাত্রা শুরু করে। এবং একই বছর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড একচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) থেকে সম্পদ ব্যবস্থাপক হিসেবে লাইসেন্স গ্রহণ করে। এছাড়া ২০১৬ সালে কোম্পানিটি বিএসইসি থেকে অল্টারনেটিভ ফান্ড ম্যানেজারের লাইসেন্স লাভ করে।

ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট বর্তমানে দুটি মেয়াদী এবং একটি বে-মেয়াদী মিউচুয়াল ফান্ড পরিচালনা করছে। সাউথইস্ট ব্যাংক ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড ও এনএলআই ফার্স্ট মিউচুয়াল ফান্ড ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত। বে-মেয়াদী ফান্ড ভিআইপিবি অ্যাক্সিলারেটেড ইনকাম ইউনিট ফান্ড ২০১৬ এর জুলাইতে শুরু করা হয়। নতুন অল্টারনেটিভ ফান্ড ম্যানেজারের লাইসেন্সের মাধ্যমে ভিআইপিবি অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট অদূর ভবিষ্যতে প্রাইভেট ইকুইটি এবং ইমপ্যাক্ট ফান্ড পরিচালনা করতে চায়।

অর্থসূচক/গিয়াস/এস

এই বিভাগের আরো সংবাদ